১৯ জুলাই, ২০২৪, শুক্রবার

নাগরিকদের উদ্ধারে আমেরিকান সৈন্যরা ফের আফগানিস্তানে

Advertisement

আফগানিস্তানে অবস্থানরত যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের কর্মী এবং নাগরিকদের ফিরিয়ে নিতে দেশটিতে পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্যরা। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো বলছে, আমেরিকান দূতাবাসের কর্মীদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো ৩ হাজার সৈন্যের প্রথম একটি দল কাবুলের কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাতে শুরু করেছে শনিবার।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে যুক্তরাষ্ট্রের একজন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা আমেরিকান টেলিভিশন নেটওয়ার্ক সিবিএসকে বলেছেন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বাকি সৈন্যরাও আফগানিস্তানে পৌঁছাবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

আগামী ৩০ দিনের মধ্যে তালেবানের সদস্যরা আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখলে নিতে পারে বলে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দারা আগে যে অনুমান করেছিলেন; সেটি ভুল প্রমাণিত হতে চলেছে। ওই নিরাপত্তা সূত্র বলেছে, আমেরিকান গোয়েন্দাদের ধারণার আগেই কাবুলের নিয়ন্ত্রণ তালেবানের হাতে যাওয়ার হুমকি রয়েছে।

সরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর কাছ থেকে আফগানিস্তানের আরও পাঁচটি প্রাদেশিক রাজধানী দখল করে নিয়েছে সশস্ত্র বিদ্রোহীগোষ্ঠী তালেবান। এ নিয়ে গত শুক্রবার থেকে আফগানিস্তানের মোট ৩৪টি প্রদেশের মধ্যে ১৮টির পতন হলো তালেবানের হাতে।

শুক্রবার সকালে কান্দাহার ও লস্কর গাহ দখল করার পর তালেবান এদিন বিকেলে ঘোর প্রদেশের রাজধানী ফিরুজ কোহ, উরুজগানের রাজধানী টেরেনকোট, লোগারের রাজধানী পুল-ই-আলম ও বাদঘিসের রাজধানী কালা-ই নাও দখল করে নিয়েছে।

আমেরিকান সেনা প্রত্যাহারে তালেবানের অবিশ্বাস্য সামরিক সাফল্যের দিকে আফগান সরকার তো বটেই, পুরো বিশ্বই অবাক হয়ে তাকিয়ে রয়েছে। কোথাও কোথাও লড়াই ছাড়াই তালেবানের কাছে পরাজয় স্বীকার বা আত্মসমর্পণ করছে সরকারি বাহিনী।

এই পরিস্থিতিতে আফগানিস্তানে ফের সেনা পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন। তবে তা মূলত স্বল্প সময়ের জন্য ও সেখানে অবস্থানরত দূতাবাসকর্মী ও নাগরিকদের নিরাপদে সরিয়ে আনার জন্য বলে জানিয়েছে বিবিসি।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement