১৯ জুলাই, ২০২৪, শুক্রবার

কাবুলে আরও হামলার আশঙ্কা

Advertisement

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে বোমা বিস্ফোরণের পরপর কাবুলের যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস আমেরিকানদের ওই এলাকা থেকে সরে যেতে বলেছে। কাবুলে ফরাসি দূত ডেভিড মার্টিন বিমানবন্দর এলাকায় আরও হামলার আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন। সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তালেবান বাহিনী আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার ১০ দিন পর বৃহস্পতিবার এই জোড়া বিস্ফোরণে ঘটনা ঘটেছে। কাবুলে হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বাইরে ভয়াবহ ওই বিস্ফোরণে ১৩ আমেরিকান সেনাসহ অন্তত শতাধিক জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১৫০ জনের বেশি। হতাহতদের মধ্যে বেসামরিক আফগান নারী ও শিশু রয়েছে।

পরে রাতে এই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করে আন্তর্জাতিক জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) বিবৃতি দিয়েছে বলে জানায় রয়টার্স।

তালেবানের সঙ্গে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে বিদেশি সেনা প্রত্যাহারে যুক্তরাষ্ট্রের চুক্তির পর আফগানিস্তানে এই প্রথম আমেরিকান সেনা নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটল।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়া কাবুল বিমানবন্দরে ও আশপাশে জড়ো হওয়া আফগান ও পশ্চিমাদের সেখান থেকে সরে যেতে অনুরোধ করেছিল। কাবুলের মার্কিন দূতাবাস এক সতর্কবার্তায় জানায়, বিমানবন্দর ও এর আশপাশে আত্মঘাতী হামলা চালাতে পারে আইএস।

তবে এরপরও বিমানবন্দরে ভিড় ও বিশৃঙ্খলা কমেনি। একপর্যায়ে কাবুল ছাড়তে মরিয়া আফগানদের সেখান থেকে হটাতে ফাঁকা গুলি চালান আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। এর কয়েক মিনিট আগে ইতালির সি-১৩০ সামরিক পরিবহন উড়োজাহাজ ১০০ বেসামরিক আফগানকে নিয়ে রানওয়ে ছেড়েছিল।

এরপর খবর ছড়িয়ে পড়ে, উড়োজাহাজ লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়েছে। তবে ইতালির সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম রয়টার্স জানায়, উড়োজাহাজটি অক্ষত রয়েছে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement