১৮ জুলাই, ২০২৪, বৃহস্পতিবার

আমেরিকান ভয়ঙ্কর যুদ্ধযান চালাচ্ছে তালেবান!

Advertisement

ক্ষমতা দখলের পর যুক্তরাষ্ট্রের হেলিকপ্টার, সাঁজোয়া যান, অস্ত্র আর ভয়ঙ্কর ব্ল্যাক হাওয়াক হেলিকপ্টারে তলেবানের মহড়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় হোয়াইট হাউস বিব্রত অবস্থায় পড়েছে বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান জানান, প্রতিটা রণ সরঞ্জাম কোথায় রয়েছে সেই ব্যাপারে আমাদের সঠিক ধারণা নেই। তবে বেশ বড় একটা অংশ তালেবানের কব্জায় চলে গেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

চলতি বছরের এপ্রিলে আফগানিস্তান থেকে আমেরিকান সেনা প্রত্যাহার শুরুর পর দ্রুতগতিতে দেশটির দখল নেয় তালেবান। গত দুই দশক ধরে আফগান সেনাদের বিভিন্ন রণ সরঞ্জাম সরবরাহ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। সেই সব অস্ত্রই তালেবানের হাতে পড়েছে বলে ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে তালেবান যোদ্ধাদের এমফোর আর এমএইনটিন অ্যাসল্ট রাইফেল হাতে মহড়া দিতে দেখা গেছে। অনেক আমেরিকান হামভি গাড়িও তালেবানের দখলে বলে জানা গেছে। একটি ভিডিওতে তালেবান যোদ্ধাদের আমেরিকান বাহিনীর বিশেষ সামরিক পোশাকও পরতে দেখা গেছে।

 জানা গেছে, আফগান সেনাবাহিনীকে সাম্প্রাতিক বছরগুলোতে সাত হাজার মেশিন গান, চার হাজার ৭শ’ হামভি গাড়ি আর ২০ হাজার গ্রেনেড সরবরাহ করেছে আমেরিকান সামরিক বাহিনী।

যুক্তরাষ্ট্রের তরফ থেকে আফগান সেনাবাহিনীকে আর্টিলারি, ড্রোন, হেলিকপ্টারসহ দুইশ’র বেশি এয়ারক্রাফট দেওয়া হয়েছে।

আফগান সেনাবাহিনীর কাছে সরবরাহ করা এসব রণ সামগ্রী তালেবানের হাতে পড়ায় তা যুক্তরাষ্ট্রের মাথাব্যথায় কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি জানান, এই ইস্যুতে পেন্টাগন কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা এমন কারো হাতে আমাদের রণ সরঞ্জাম দেখতে চাই না যারা আমাদের কিংবা আফগান জনগণের স্বার্থের বিরুদ্ধে কাজ করে।

এসব অস্ত্র ধ্বংসসহ অনেক ধরনের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া যেতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে ঠিক কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তা নির্দিষ্ট করে বলেননি তিনি।

এদিকে, এসব রণসরঞ্জাম বিশেষ ক্ষেত্রে তালেবানের ক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement