২০ জুলাই, ২০২৪, শনিবার

বিনা বাধায় রাজধানী কাবুলে ঢুকে পড়েছে তালেবান

Advertisement

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ঢুকে পড়েছে জঙ্গি তালেবান যোদ্ধারা। রবিবার চতুর্দিক থেকে শহরটিতে প্রবেশ করতে শুরু করে তারা। আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকেও বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। কাবুলে দায়িত্বরত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরাও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কাবুলের পথে পথে তালেবান যোদ্ধারা নারী ও শিশুদের ওপর নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। কিশোরীদের জোর করে বিয়ের নামে ধর্ষনেরও অভিযোগ উঠেছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে।

যদিও তালেবানের শীর্ষস্থানীয় একজন নেতা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, দলের সদস্যদের সহিংসতা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেউ শহর ছাড়তে চাইলে তাদের বাধা না দেওয়ারও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নারীদের নিরাপদে অবস্থান করতে বলা হয়েছে।

আফগান প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে অবশ্য এখনই কাবুলের পতনের কথা অস্বীকার করা হয়নি। তবে শহরে ‘বিচ্ছিন্ন গোলাগুলির’ কথা স্বীকার করা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, প্রায় বিনা বাধায় কাবুলে ঢুকে পড়েছে তালেবান যোদ্ধারা। তবে দলটির একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, গায়ের জোরে কাবুল দখল করা তাদের লক্ষ্য নয়। তালেবান ক্ষমতার শান্তিপূর্ণ হস্তান্তর চায়। সাধারণ মানুষ যেন সহিংসতার শিকারে পরিণত না হন, সেদিকে খেয়াল রাখা হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত আফগানিস্তানের ৩৪টি প্রদেশের মধ্যে ১৮টি তালেবানের নিয়ন্ত্রণে ছিল। কিন্তু এর পর কার্যত ঝড়ের গতিতে এগোতে শুরু করে দলটি। একে একে হেরাত, আয়বাক, গজনি, কান্দাহার, তালিকান, কুন্দুজের মতো গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিতে সমর্থ হয় তারা। উত্তর দিক থেকে কাবুলের প্রবেশ পথ মাজার-ই-শরিফও একদিনেই দখল করে নেয় তারা। রবিবার সকাল পর্যন্ত মোট ২৬টি প্রদেশ তালিবানের দখলে ছিল। এখন কাবুলের দিকে অগ্রসর হওয়ার মধ্য দিয়ে পুরো দেশেরই নিজেদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার পথে হাঁটছে তালেবান।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement