১৮ জুলাই, ২০২৪, বৃহস্পতিবার

মনে হচ্ছে পুরো ভিন্ন এক পৃথিবী: বেন সিয়ার্স

Advertisement

নিউজিল্যান্ডের আবহাওয়ায় যেমন বাংলাদেশ মানিয়ে নিতে কষ্ট হয়, ঠিক তেমনি বাংলাদেশের আবহাওয়ায় মানিয়ে নিতে কষ্ট হচ্ছে নিউজিল্যান্ডেরও। এ গরমে মানিয়ে নেওয়া দারুণ কষ্টের কাজ বলেও মানছেন কিউইরা। তাইতো বেন সিয়ার্স স্বীকার করে নিলেন, এর আগে কখনও এত গরমে অনুশীলন করেননি তিনি।

তিনি বলেন, ‘এখানে অনেক গরম। এবারই প্রথম অনুশীলনে নেমে আমি এমন গরম অনুভব করলাম। চেষ্টা করছি মানিয়ে নেওয়ার। শেখার চেষ্টা করছি, অস্বস্তি অনুভব হলেও কীভাবে বল করে যেতে হবে। ব্যাপারটা একটু মজার! তবে আপনি হাইড্রেটেড থাকলে অসুবিধা নেই।

শুধু আবহাওয়াই নয় পরিবেশটাই যেন কেমন ঠেকছে এই পেসারের কাছে। তিনি মিরপুর স্টেডিয়াম নিয়ে বলেন ‘এটা পুরোপুরি ভিন্ন। দেশের মত নয়। চোখ খুলে দেওয়ার মত। মনে হচ্ছে পুরো ভিন্ন এক পৃথিবী।’

তবে বিসিবির জৈব সুরক্ষা দেখে নিজের দেশের ফিল হচ্ছে একটি জিনিসে মিল খুঁজে পাচ্ছেন সিয়ার্স। তার মনে হচ্ছে নিউজিল্যান্ডের কঠোর লকডাউনের মধ্যে রয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমরা জনসাধারণ থেকে বিচ্ছিন্ন আছি। হোটেলে নিজেদের আঙিনায় আছি, নিজেদের রুমে আছি। খুব বেশি মানুষের কাছাকাছি আসতে হচ্ছে না। দেশের লকডাউনের সাথে তুলনা করা যায়। খুব একটা ভিন্নতা নেই। এই প্রথম দেশের বাইরে খেলতে এসেছি। একটু অদ্ভুত, তবে এই পরিস্থিতি অনুযায়ী স্বাভাবিক।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement