২০ জুলাই, ২০২৪, শনিবার

থ্রিলার মুভি নয়, ভারতে গিয়ে মেয়েকে উদ্ধার করলেন মা

Advertisement

এ যেন থ্রিলার মুভির গল্প। মেয়েকে ভারতে পাচার করেছে একটি চক্র। শেষে মেয়েকে উদ্ধারে মা নিজে পরিকল্পনা করে ফাঁদে পা দেয় ওই চক্রের। তারপর নিজেও হয়ে যায় পাচার। শেষে বহু পথ পাড়ি দিয়ে মেয়েকে উদ্বার করে ফিরিয়ে আনে নিজের কাছে। এমন ঘটনা ঘটেছে খোদ রাজধানী ঢাকাতেই।

মা ও মেয়েকে ভারতে পাচারকারী চক্রের দুই মূলহোতাসহ মোট ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে মূলহোতা কাল্লু ও সোহাগ রয়েছেন। এছাড়াও তারা মামা-ভাগিনা, কাল্লু-নাগিন সোহাগ, কালা-নাগিন নামেও পরিচিত। তাদের মধ্যে গ্রেপ্তার তৃতীয়জনের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

আজ সোমবার (১৬ আগস্ট) র‌্যাবের লিগ্যাল ও মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক ইমরান খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
র‌্যাবের সূত্র জানায়, এ বছরের (২০২১ সালের) জানুয়ারি মাসে কাল্লু-সোহাগের পাচার চক্র মিরপুর ১২ নম্বর শাহ পরান ক্যাম্পের তরুণী খুশিকে বিউটি পার্লারে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে পাচার করে।

তরুণীর মা মেয়েকে খুঁজতে নানা তৎপরতা চালালেও পায়নি তরুণী খুশিকে। এ ঘটনার কিছুদিন পর একটি অপরিচিত মোবাইল নম্বর থেকে খুশি তার মাকে জানায় সে ভারতে আছে। তখন সে তার মায়ের কাছে বাঁচার আকুতি জানায়। তখন তরুণীর মা আর কোনো উপায় না দেখে মেয়েকে বাঁচাতে নিজেই বিক্রি হয়ে যান পাচারকারী চক্রের কাছে।

তখন পাচারকারী চক্রের সদস্য কাল্লুর সহযোগিতায় তিনি ভারত যান। তারপর ভারতের কিশোরগঞ্জের পাঞ্জিপাড়ার একটি পতিতা পল্লী থেকে মেয়ে খুশিকে উদ্ধার করে কয়েক মাস পর তিনি বাংলাদেশে আসেন। তারপর অভিযোগের ভিত্তিতে অনুসন্ধান করে আসামিদের উদ্ধার করা হয়।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement