১৯ জুলাই, ২০২৪, শুক্রবার

যুক্তরাষ্ট্র ২০০মার্কিনিকে কাবুলে ফেলে গেছে

Advertisement

চূড়ান্তভাবে আফগানিস্তান ছেড়েছে যুক্তরাষ্ট্র দীর্ঘ ২০ বছরের যুদ্ধ শেষে। সোমবার (৩০ আগস্ট) মার্কিন সামরিক বাহিনীর সবশেষ ৫টি ফ্লাইট আফগান ভূখণ্ড ছেড়ে যায় বলে জানিয়েছে পেন্টাগন। যুক্তরাষ্ট্র চূড়ান্তভাবে আফগানিস্তানের ভূখণ্ড ছাড়লেও প্রায় ২০০ মার্কিন নাগরিক ও দেশ ছাড়তে ইচ্ছুক হাজার হাজার আফগানকে ফেলে রেখে গেছে কাবুলে।

আজ (৩১ আগস্ট) এ তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এপি এক প্রতিবেদনে। সে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র সোমবার মার্কিন সামরিক বাহিনী চূড়ান্তভাবে আফগান ভূখণ্ড ছাড়লেও কাবুলে প্রায় ২০০ মার্কিন নাগরিককে ফেলে রেখে গেছে। সেই সাথে দেশ ছাড়তে ইচ্ছুক হাজার হাজার আফগান নাগরিককেও ফেলে রেখে গেছে যুক্তরাষ্ট্র। তাদেরকে এখন কাবুল ছাড়ার জন্য তালেবানের অনুমতির ওপর নির্ভর করতে হবে বলেও জানিয়েছে এপি।

আবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন জানিয়েছেন, তবে যুক্তরাষ্ট্র চূড়ান্তভাবে আফগানিস্তান ছাড়লেও দেশটিতে থাকা মার্কিন নাগরিক এবং আফগানদের বের করে আনতে চেষ্টা চালিয়ে যাবে ওয়াশিংটন। তাছাড়া কাবুল বিমানবন্দর আবার চালু হলে বিমানের মাধ্যমে বা স্থলপথে তাদেরকে বের করে আনতে যুক্তরাষ্ট্র প্রতিবেশিদের সঙ্গে কাজ করবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ব্লিংকেন এটিও বলেছেন যে, বৈধতা অর্জন করতে হবে তালেবানকে। সেই সাথে তারা তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে কি না এবং নাগরিকদের ভ্রমণে স্বাধীনতা দেওয়া, নারীদের অধিকার রক্ষা এবং সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে দমন করছে কি না-এসব বিষয় বিশ্ববাসীর নজরে থাকবে।
তালেবান কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের এবং জোট বাহিনীর বিমানগুলোয় করে সব মিলিয়ে ১ লাখ ২৩ হাজার বেসামরিক ব্যক্তিকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। সাড়ে সাত হাজারের বেশি মানুষ প্রতিদিন কাবুল ছাড়ার সুযোগ পেয়েছেন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement