১৯ জুলাই, ২০২৪, শুক্রবার

যেকোন মূল্যে ম্যান সিটিতে যেতে চান রোনালদো

Advertisement

জুভেন্টাস ছাড়ার গুঞ্জন অস্বিকার করেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো-নিজেই। কিন্তু সেই কথা আবার নতুন করে স্বীকার করলেন রোনালদো। তিনি বললেন সেই গুঞ্জন সত্য ছিলো।

বিবিসিকে দেওয়া একটি সাক্ষাতকারে রোনালদো বলেন, ইতালি ছাড়তে ইচ্ছুক তিরি। তার এজেন্ট হোর্হে মেন্দেজ বেরিয়েও পড়েছেন নতুন কোন ক্লাবের খোজে। আর জুভেন্টাসও রোনালদোকে বিক্রি করবে বলে ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। তবে সেখানে রয়েছে বেশ কিছু শর্ত।

আগামী বছরের জুন মাসে রোনালদোর সাথে চুক্তি শেষ হবে জুভেন্টাসের কিন্তু এরইমধ্যে তুরিন ছাড়তে ব্যাকুল হয়ে উঠেছেন সিআর সেভেন। তবে হুট করে ক্লাব ছাড়তে চাওয়ায় বেশ কিছু শর্ত দিয়েছে জুবেন্টাস। যা বেশ কঠিন, এমন অবস্থায় ক্লাব কর্মকর্তাদের কাছে রোনাল্ডোর আকুল আবেদনে তিনি বলেছেন আমাকে ছেড়ে দাও তোমরা।

দলবদলবিষয়ক নির্ভরযোগ্য ইতালিয়ান সাংবাদিক ফাব্রিজিও রোমানোর এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, জুভেন্টাস সতীর্থদের কাছে বিদায়ও নিয়ে নিয়েছেন রোনাল্ডো। তার এজেন্ট হোর্হে মেন্দেজ ম্যান সিটির কর্মকর্তাদের সঙ্গে দফায় দফায় আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন। উদিনেসের বিপক্ষে শুরুর একাদশে ছিলেন না তিনি রোনালদো। আর কোচকে রোনালদো নিজেই এই ম্যাচে একাদশে না রাখার জন্য অনুরোধ করেছিলেন। জুভেন্টাসের সামনের ম্যাচেও একাদশে রোনালদোকে দেখা যাবেনা বলে জানিয়েছেন রোমানো। তিনি এটাও বলেছেন যে যেকোন মুল্যে ম্যানসিটিতে যেতে ইচ্ছুক রোনালদো।

ইনডিপেনডেন্টের প্রধান ফুটবল প্রতিবেদক মিগেল ডেলানি জানিয়েছেন, সিটিতে রোনাল্ডো সপ্তাহে ২ লাখ ৫০ হাজার পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩ কোটি টাকা) বেতনের একটি প্রস্তাবনার কথা শোনা যাচ্ছে। অর্থাৎ মাসে ১০ লাখ পাউন্ড বা বছরে ১২০ লাখ পাউন্ড। যা বাংলাদেশি ১৪০ কোটি ৪৬ লাখ টাকা।

এদিকে স্প্যানিশ স্পোটর্স ডেইলির দাবি, ম্যানসিটি থেকে রোনাল্ডোকে বছরে ১৫ মিলিয়ন ইউরোর (বাংলাদেশি ১৫০ কোটি টাকা) প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে, যা তুরিনে পাওয়া তার বেতনের অর্ধেক। জুভেন্টাসে রোনাল্ডো বছরে পেয়েছেন ৩১ মিলিয়ন ইউরো। যাইহোক ইউরোপের প্রায় সব গণমাধ্যমের দাবি, ম্যান সিটি রোনাল্ডোকে ১৫ মিলিয়নের বেশি বেতনের প্রস্তাব দিচ্ছে না।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement