২৪ জুলাই, ২০২৪, বুধবার

চুয়াডাঙ্গায় চিরনিদ্রায় শায়িত রেডিও টুডের পরিচালক রাবিয়া খাতুন

Advertisement

দেশের প্রথম বেসরকারি রেডিও স্টেশন রেডিও টুডে এফএম ৮৯.৬ এর পরিচালক ও বঙ্গজ-তাল্লু গ্রুপের চেয়ারম্যান রাবিয়া খাতুন আর নেই। বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা ৫৫ মিনিটে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন! তাঁর বয়স হয়েছিল ৮০ বছর।

রাবিয়া খাতুন তিন পুত্র ও চার কন্যা ও অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, গুণগ্রাহী ও শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন। তাঁর বড় ছেলে রফিকুল হক রেডিও টুডে এফএম ৮৯.৬ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক।

রাবিয়া খাতুন ১৯৪১ সালের পহেলা জানুয়ারি চুয়াডাঙ্গা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর স্বামী মরহুম মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য। তিনি দেশের অন্যতম শিল্পপ্রতিষ্ঠান বঙ্গজ-তাল্লু গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করেন।

বাদ আসর রাজধানীর গুলশান আযাদ মসজিদে মরহুমার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। দেশের প্রথম বেসরকারি রেডিও স্টেশন রেডিও টুডে এফএম ৮৯.৬ এর পরিচালক ও বঙ্গজ-তাল্লু গ্রুপের চেয়ারম্যান রাবিয়া খাতুনের দ্বিতীয় দফা জানাজা অনুষ্ঠিত হয় চুয়াডাঙ্গায়।  শুক্রবার বাদ আসর দ্বিতীয় নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থান জান্নাতুল মাওলা’য় তাঁকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়।

চুয়াডাঙ্গা শহরেরর ইমার্জেন্সি রোডের রাবিয়া খাতুনের বাড়িতে ছিল দূর দুরান্ত থেকে আসা মানুষের ভিড়। সাফল্যের শিখরে পৌঁছে যিনি অতীতকে ভোলেননি তিনি রাবিয়া খাতুন। দেশের সফল শিল্প উদ্যোক্তা, সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত হাজী মোজাম্মেল হকের স্ত্রী দেশের প্রথম বেসরকারি রেডিও স্টেশন রেডিও টুডের পরিচালক ও বঙ্গজ তাল্লু গ্রুপের চেয়ারম্যান গতকাল ভোরে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। শিল্পপতির সহধর্মীনি হলেও রাবিয়া খাতুনের জীবনযাপন ছিল সাদামাটা।

জানাজার আগে চুয়াডাঙ্গার সর্বস্তরের মানুষের কাছে মায়ের জন্য দোয়া চান রাবিয়া খাতুনের বড় ছেলে রেডিও টুডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল হক।

পরিচালক রাবিয়া খাতুনের মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত রেডিও টুডে পরিবার। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডক্টর হাছান মাহমুদ এবং বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement