৭ ডিসেম্বর, ২০২২, বুধবার

লক্ষ্মীপুরে জামায়াতের তিন শীর্ষ নেতা কারাগারে

Advertisement

লক্ষ্মীপুরে সন্ত্রাস দমন আইনের মামলায় জামায়াতের তিন শীর্ষ নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। (২৪ নভেম্বর) বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ রহিবুল ইসলাম তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- রুহুল আমিন জেলা জায়ামাতের আমির, হাফিজ উল্যা সেক্রেটারি ও নুরুল হুদা জেলা কমিটির সিনিয়র নেতা। লক্ষ্মীপুর জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) জসিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, আসামিরা আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন আবেদন করেছেন। বিচারক তাদের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন। তাদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। এ মামলায় আরও পাঁচজন কারাগারে আছে।

আদালত সূত্র জানায়, গত (২৪ সেপ্টেম্বর) বিপুল শহরের দক্ষিণ তেমুহনী এলাকার সেমিপাকা ভাড়া বাসায় জামায়াতের ৪০-৫০ জন লোক ঘটনাস্থলে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ঘটানোর পাঁয়তারায় বৈঠক করছিলেন। এ সময় ৫২০টি জিহাদী বইসহ দুজনকে আটক করে পুলিশ। বাকিরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যান। 

পর দিন সদর মডেল থানার এসআই হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে সন্ত্রাস দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করে। আটককৃতদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়। (১০ অক্টোবর) রাতে আরও তিন জামায়াত নেতাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ মামলায় আবদুর রহমান, নুর আলম লিটন, আবদুর রশিদ ও সক্রিয় শিবির সদস্য সুমন ও বেলাল হোসেন কারাগারে রয়েছেন। 

এদিকে মামলার অন্যতম আসামি রুহুল আমিন, হাফিজ উল্যা ও নুরুল হুদা তখন উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়েছিলেন। জামিনের সময় শেষ হওয়ায় তারা লক্ষ্মীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালত তাদের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement