১৭ জুলাই, ২০২৪, বুধবার

অতিরিক্ত গরমে বদ হজমের ঘরোয়া সমাধান

Advertisement

যারা খেতে ভালোবাসেন, তারা চাইলেও অনেক খাবার বাদ দিতে পারেন না। আবার চোখের সামনে মজাদার সব খাবার দেখলে সব সময় এড়িয়ে চলাও সম্ভব হয় না। স্বাদের জন্য আমরা বেশিরভাগ খাবারেই যোগ করি অতিরিক্ত তেল-মসলা। যে কারণে গ্যাস্ট্রিকের রোগীর সংখ্যাও বেড়ে চলেছে। তবে এ জাতীয় সমস্যার সমাধানে ওষুধের ওপর নির্ভর করা যাবে না। খাবারের তালিকায় কিছু যোগ-বিয়োগ এনে সহজেই সমাধান করা সম্ভব।

বিশেষজ্ঞদের মতে, স্বাভাবিক উপায়েই আমাদের হজম ক্ষমতা বাড়ানো উচিত। সেইসঙ্গে প্রয়োজন হজমের জন্য সহায়ক খাবার খাওয়া। স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার পাশাপাশি কিছু কৌশল মেনে চললে হজমের সমস্যা দূর করা সম্ভব হবে। জেনে নিন এই গরমে বদ হজম দূর করার কিছু ঘরোয়া উপায়-

এলাচঃ

গরমের সময়ে পেটের স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য এলাচ বিশেষ সহায়ক। এলাচে থাকা বিভিন্ন উপকারী উপাদান পেটের অনেক সমস্যা দূর করতে কাজ করে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, গরমের এই সময়ে এলাচ পেট ঠান্ডা রাখতেও দারুণ কার্যকরী। তাপ প্রবাহের মতো পরিস্থিতিতে এই মসলা নিয়মিত খেলে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দূরে থাকবে, দূরে থাকবে বদ হজম।

​পুদিনা পাতাঃ

যারা বদ হজমের সমস্যায় ভুগছেন, তাদের ক্ষেত্রে গলা জ্বালার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। এক্ষেত্রে তখনই কয়েকটা পুদিনা পাতা চিবিয়ে খেয়ে নিতে হবে। কারণ পুদিনা পাতায় আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান। এসব উপাদান শরীরের ভেতরের প্রদাহ কমিয়ে পেটের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে কাজ করে। বদহজম দেখা দিলে পুদিনা পাতার রসও খেতে পারেন। এতেও সমান উপকার পাবেন।

তুলসিঃ

সুস্থ থাকতে তুলসি পাতার ব্যবহার চলে আসছে বহু প্রাচীনকাল থেকেই। এই তুলসি পাতা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য বিশেষ উপকারী। এই পাতায় আছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিইনফ্লমেটরি গুণ। যে কারণে পেটের যেকোনো সমস্যা কমাতে তুলসীর পাতা দারুণ কার্যকরী। তীব্র গরমে বদ হজম থেকে বাঁচতে নিয়মিত তুলসি পাতা ও তুলসি পাতার রস খেতে পারেন।

জোয়ানঃ

যারা সারা বছর পেটের সমস্যায় ভুগে থাকেন তাদের জন্য একটি উপকারী উপাদান হলো জোয়ান। এটি হজমে বিশেষ সহায়ক হিসেবে কাজ করে। গ্যাস, অ্যাসিডিটি, বুক জ্বালা এবং পেট জ্বালা কমাতে দারুণ কার্যকরী প্রাকৃতিক এই উপাদান। খাবার খাওয়ার সময়ে অতিরিক্ত পানি পান করবেন না। যাদের এ ধরনের অভ্যাস আছে তাদের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা বেশি হয়। খাবারের মাঝখানে পানি খাওয়ার প্রয়োজন হলে অল্প খাবেন। এতে বদ হজমের ভয় থাকবে না।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement