২২ জুন, ২০২৪, শনিবার

আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপে খেলবে না কোন দল!

Advertisement

আফগানিস্তানের নারী খেলোয়াড়দের থেকে মাঠে নেমে খেলার অধিকার কেঁড়ে নিয়েছে তালেবান সরকার। কিন্তু শুরুমাত্র পুরুষরাই খেলতে পারবে মাঠে ময়দানে। দেশের অর্ধেক মানুষের খেলাধুলার অধিকার কেড়ে নেওয়ায় অফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ বাতিলের হুমকি দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তারা বলছে বিশ্বকাপেও কোন দলের উচিত নয় আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলা। এক সাক্ষাৎকারে দেশটির টেস্ট অধিনায়ক টিম পেইন আরও জানালেন, ‘দেশের অর্ধেক জনসংখ্যার অধিকার’ কেড়ে নেওয়া দলের বিপক্ষে বিশ্বকাপের মতো আসরে খেলা উচিত নয় কোনো দলেরই।

শেষবার যখন তালেবানরা ক্ষমতায় ছিলো, নারী ক্রিকেট তো বটেই, পুরুষদের খেলাধুলাও চলে গিয়েছিল হিমাগারে। সে নীতি থেকে এবারের ‘উদারনীতিবাদি’ আফগান সরকার সরে এসেছে। তালেবানদের এমন সিদ্ধান্তে তো টেস্ট স্ট্যাটাসও হুমকির মুখে পড়ে যাওয়ার কথা কারণ টেস্ট খেলুড়ে দেশের অবস্যই নারী ক্রিকেট চালু রাখতে হবে এমন নীতি রয়েছে আইসিসির।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক পেইন বললেন ‘আমার মনে হয় না, আমরা এমন দেশের সঙ্গে একই কাতারে থাকতে চাই, যারা আক্ষরিক অর্থেই তাদের জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেকের সুযোগ ও অধিকার কেড়ে নিয়েছে। এটা খুবই দুঃখজনক। এমন এক দল কী করে আইসিসি অনুমোদিত একটা টুর্নামেন্টে খেলতে পারে, বিষয়টা দেখা খুব, খুবই কঠিন হতে যাচ্ছে।’

পেইন আরও বলছেন, ‘আইসিসির কাছ থেকে এই বিষয়ে কোনো কিছু শুনিনি আমরা। বিষয়টা হতবাক করে দেওয়ার মতো, কারণ মাত্র এক মাসের দূরত্বে আছে একটা বিশ্বকাপ!’

আফগানিস্তানকে সায়েস্তা করতে পেইন বলেন, ‘আমার মনে হয়, দলগুলো যদি তাদের বিপক্ষে খেলা থেকে নিজেদের সরিয়ে নেয় ও বিভিন্ন দেশের সরকার তাদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে, তাহলেই তাদের পক্ষে বিশ্বকাপে খেলা অসম্ভব।’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement