১৭ জুন, ২০২৪, সোমবার

কৌশলেই ঘায়েল করতে হবে ভারতকে: জেমি ডে

Advertisement

ভারতের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত মাঠে ময়দানে লড়েছে মোট ২৯টি ম্যাচে, যার মধ্যে মাত্র ২ টি ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলার ফুটবলাররা। ১২ ম্যাচে ভাগাভাগি করে নিয়েছে পয়েন্ট। আর পয়েন্ট হারিয়েছে ১৫ ম্যাচে। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে, এর আগে ১৯৮৫ সালে ভারতের সাথে দেখা হয়েছিলো বাংলাদেশের। হোম ম্যাচে বাংলাদেশ ভারতের কাছে হেরেছিলে ২-১ গোলের ব্যবধানে। প্রতিপক্ষের মাটিতে গিয়েও দ্বিতীয় লেগে টাইগার ফুটবলারদের হার ২-১ গোলে।

তবে, ৩৪ বছর পর এসে সমীকরণে কিছুটা পরিবর্তন এসেছে। ২০১৯ সালে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম লেগে ভারতের মাটিতে ১-১ গোলে ড্র করে পয়েন্ট ছিনিয়ে নেয় বাংলাদেশ। আফগানিস্তানর বিপক্ষে বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও যেভাবে ফাইট ব্যাক করেছিলো জামালের দল তাতে ভারতের বিপক্ষে ভালো কিছু আশা করাটা দোষের কিছু নয়।

৩৬ বছর পরে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে দারুণ একটি জয় তো পেতেই পারে ফুটবলের টাইগাররা। কিন্তু এমন আশার পালে হাওয়া লাগাতে চাইছেন না বাংলাদেশ ফুটবল দলের কোচ জেমি ডে। কাতার থেকে হোয়ার্টঅ্যাপে কে স্পোর্টসের সাথে একান্ত আলাপে জেমি জানালেন, আমরা চাই পজেটিভ ফুটবল খেলতে। ভারত খুবই শক্তিশালী দল। তাদের খাটো করে দেখার কোন জায়গা নেই। তবে আমরা চাইবো নিজেদের স্কিল ও বুদ্ধি দিয়ে ফুটবল খেলতে।

আজ (সোমবার) ভারতের বিপক্ষে একাদশে কোন পরিবর্তন আসবে কি না, এমন প্রশ্ন কিছুটা এড়িয়েই গেলেন জেমি। জানালেন এটা এখনও বলা যাচ্ছে না। ম্যাচের আগে প্রতিপক্ষের অবস্থা দেখেই আমরা সিদ্ধান্ত নিবো। কোন ফরম্যাটে দল আজ মাঠে নামবে সেই প্রশ্নেও জেমি ছিলেন নিশ্চুপ। হয়তো ভারতকে ঘায়েল করার মন্ত্র এই মুহূর্তে ফাঁস করতে চাইছেন না টাইগার ফুটবলারদের গুরু মিস্টার জেমি ডে।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আজকের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ২-১ গোলে জেতা কতটা সম্ভব? এই প্রশ্নের বিপরীতে খানিকটা রশীকতাই করলেন জেমি। রসিকতার ছলেই বললেন, এটি বলা যদিও খুব কঠিন ও দুঃসাহসী কাজ তারপরও ধরে নাও ফুটবলাররা যদি ৮০ শতাংশ মাঠে দিতে পারে তাহলে হয়তো সম্ভব।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement