২৫ জুন, ২০২৪, মঙ্গলবার

গাজীপুরের যানজট এসে ঠেকল রাজধানীতে

Advertisement

গাজীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের যানজট এসে ঠেকেছে মহাখালী পর্যন্ত। ট্রাফিক পুলিশের কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়ে বলছেন, টঙ্গী থেকে বনানী, ফার্মগেটসহ ঢাকার বিভিন্ন রাস্তায় তৈরি হয়েছে যানজট। অফিস ও বিভিন্ন প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হওয়া মানুষ পড়েছেন ভোগান্তিতে। সোমবার রাত থেকে বৃষ্টির কারণে গাজীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে পানি জমে আছে।

মো. জাহিদুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি জানান, বনানী থেকে খিলক্ষেত যেতে তাঁর দুই  ঘণ্টা সময় লেগেছে। খিলক্ষেত থেকে উত্তরা যাওয়ার পথে যানজট বেশি। যানজটে আটকে থাকার কষ্ট সহ্য করতে না পেরে অনেকেই বাস থেকে নেমে হাঁটতে শুরু করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে যানজটে আটকে পড়া অনেক যাত্রীকে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে। কিন্তু জীবিকার প্রয়োজনে বনশ্রী থেকে একজন মহিলা যাত্রী আজ নির্ধারিত সময়ের দেড় ঘন্টা আগে বাসা থেকে বের হয়েও অফিসে আসতে দেরি করে ফেলেছেন। টঙ্গী বিসিক এলাকায় তার অফিস।  তিনি অনেকটা আক্ষেপের সাথেই বলেন, চাকরির প্রথম দিন থেকে একদিনও তিনি নির্ধারিত সময়ে পৌঁছতে পারেননি এই অসহনিয় যানজটের কারণে। 

কামরুল হামিদ নামের এক ব্যক্তি কুড়িল বিশ্বরোডের ফ্লাইওভারের ওপর থেকে ব্যাপক যানজটের ছবি দিয়েছেন। মিরপুরের কালশী ইসিবি চত্বরে যানজটে আটকে থেকে ভোগান্তির কথা জানিয়েছেন অনেকে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ ট্রাফিকের (উত্তর) যুগ্ম পুলিশ কমিশনার মো. আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘গাজীপুরে গাড়ি আটকে আছে। সেখানকার রাস্তায় পানি জমা, অজস্র গর্ত। তাই কয়েক দিন ধরেই ঢাকার রাস্তায় তীব্র যানজট লেগে আছে।’ তিনি বলেন, ‘যানজট এতই বেশি যে মহাখালী ফ্লাইওভার পর্যন্ত চলে এসেছে আজ।’

এই ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, গাজীপুর অংশে কিছু গাড়ি পানি, খানা-খন্দে ভরা রাস্তায় উল্টে যাওয়া ও বিকল হওয়ায় যানজট দীর্ঘ হয়েছে।

ঢাকার ফার্মগেট এলাকাতেও আজ সকালে তীব্র যানজট দেখা গেছে। বেলা ১১টার দিকে ফার্মগেট থেকে খামারবাড়ী পর্যন্ত গাড়ির দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। ট্রাফিক পুলিশ বলছে, সেখানকার যানজট খুব বেশি সময় পর্যন্ত ছিল না।

অনেকের গাজীপুর থেকে ঢাকায় আসতেই লেগে গেছে তিন ঘণ্টা। ইকরামুল হোসেন  চাকরি করেন ঢাকার বনানী এলাকায়। তিনি বলেন, ‘সড়কে যানজট হবে ভেবেই অন্যান্য দিনের চেয়ে এক ঘণ্টা আগে বের হয়েছি। চান্দনা চৌরাস্তা থেকে সকাল ৬টায় বাসে উঠে উত্তরা পর্যন্ত পৌঁছাতেই বেজে গেছে সকাল ৯টা। তিন ঘণ্টা বাসে বসে থেকে একেবারে নাজেহাল হয়ে গেছি।’ ট্রাফিক পুলিশের কর্মকর্তারা বলছেন, একে তো বৃষ্টি, তার ওপর আজ সকালে গাজীপুরের স্টেশন রোড এলাকায় বালুভর্তি একটি বড় ট্রাক উল্টে যায়। তখন দীর্ঘক্ষণ যানবাহন চলাচল করতে না পারায় যানজট আরও বেড়েছে। কবে এই ভোগান্তি থেকে মুক্তি মিলবে এই প্রশ্ন সবার। 

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement