৩ মার্চ, ২০২৪, রবিবার

গ্রেমিওর হয়ে অভিষেক ম্যাচেই হ্যাটট্রিক সুয়ারেজের

Advertisement

নিজের সেরা সময়ে মাতিয়েছেন ইউরোপিয়ান ফুটবল। ক্যারিয়ারের গোধূলিলগ্নে ব্রাজিলীয় ফুটবলে পা রেখেছেন লুইস সুয়ারেজ। ফুটবলের চরণভূমিতে নেমে জ্বলে উঠলেন ৩৫ বছর বয়সী এই তারকা।

ব্রাজিলের ঘরোয়া ফুটবলে রেকোপা গাউচা সুপার কাপে সাও লুইজের মুখোমুখি হয় সুয়ারেজের দল গ্রেমিও। পোর্তো অ্যালেগ্রেতে নিজেদের মাঠে ৩৭ মিনিটের মধ্যে হ্যাটট্রিক করেন সুয়ারেজ। এতে সাও লুইজকে ৪-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা দিয়ে মৌসুম শুরু করল গ্রেমিও।

প্রথমার্ধেই ম্যাচে চার গোল পায় তারা। ৯ বছর পর প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচের প্রথমার্ধে হ্যাটট্রিক করেন সুয়ারেজ। এর আগে ২০১৩ সালে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে লিভারপুলের হয়ে নরউইচ সিটির বিপক্ষে প্রথমার্ধে হ্যাটট্রিক করেছিলেন তিনি। আর ২০১৮ সালের অক্টোবরের পর প্রথম হ্যাটট্রিক করলেন সাবেক বার্সা তারকা।  

সেবার এল ক্ল্যাসিকোতে রিয়াল মাদ্রিদের জালে তিন গোল করেছিলেন সুয়ারেজ। এ নিয়ে ৩০টি হ্যাটট্রিক করলেন তিনি। ৩০ হ্যাটট্রিকের ১২টি বার্সার জার্সিতে। এ ছাড়া ৯টি আয়াক্স, ৬টি লিভারপুল ও ২টি হ্যাটট্রিক করেন উরুগুয়ের হয়ে। তবে এই প্রথম অভিষেক ম্যাচে হ্যাটট্রিক করায় এটি সুয়ারেজের কাছে বিশেষ কিছু।

ম্যাচ শেষে সুয়ারেজ বলেন, ‘আমার মনে হয় এটাই। অ্যাতলেটিকোর হয়েও অভিষেকটা ভালো ছিল।’ এর আগে সাতটি ক্লাবের হয়ে খেলেছেন লুইস সুয়ারেজ। উরুগুয়ের ক্লাব ন্যাসিওনালের হয়ে দুই মেয়াদে দুবার প্রথম ম্যাচে (২০০৫ ও ২০২২) গোল পাননি। ডাচ ক্লাব গ্রোনিগেন ও আয়াক্সের হয়েও অভিষেকে গোল পাননি। আর ২০০৭ সালে উরুগুয়ের হয়ে অভিষেকে দেখেন লাল কার্ড।

লিভারপুলের হয়ে ২০১১ সালে অভিষেকে গোল করেন তিনি। আর ২০১৪ সালে বার্সেলোনার হয়ে অভিষেকে নেইমারকে দিয়ে গোল করান তিনি। এ ছাড়া ২০২০ সালে অ্যাতলেটিকোর হয়ে অভিষেকে করেন জোড়া গোল।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement