২৩ এপ্রিল, ২০২৪, মঙ্গলবার

চীনের উপহারের ৬ লাখ টিকা ঢাকার পথে

Advertisement

চীন সরকারের উপহারের ছয় লাখ টিকা বাংলাদেশে আসছে। ঢাকায় চীনা দূতাবাসের উপ-রাষ্ট্রদূত হুয়ালং ইয়ান আজ শুক্রবার সকালে তাঁর ফেসবুক পেজে এই তথ্য জানান।

হুয়ালং ইয়ান লিখেছেন, চীনের উপহারের ছয় লাখ টিকা এখন বেইজিং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পথে।

বাংলাদেশের জন্য নির্ধারিত চীনের সিনোফার্মের তৈরি ছয় লাখ টিকার চালানটি ১৩ জুন (রোববার) ঢাকায় আসবে বলে জানান হুয়ালং ইয়ান। 

রোববার চীনের দ্বিতীয় দফা উপহারের ভ্যাকসিন বুঝে পাবে বাংলাদেশ।  চীনের প্রথম দফা উপহারের মতোই এটিও সিনোফার্মের ভ্যাকসিন।

বাংলাদেশ ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) প্রথমে সিনোফার্মের ভ্যাকসিন অনুমোদন দিয়েছিল। সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পর বাংলাদেশও দ্বিতীয় চীনা ভ্যাকসিন সিনোভ্যাক জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দেয় ৷

চীনের দেওয়া উপহারের প্রথম দফার পাঁচ লাখ ডোজ করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা ১২ মে ঢাকায় আসে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় এক ব্রিফিংয়ে বলেন, চীনের উপহারের ছয় লাখ ডোজ টিকা আনতে দুটি সি-১৩০ প্লেন পাঠানো হচ্ছে। চীনা কমিউনিস্ট পার্টি আওয়ামী লীগকে বিভিন্ন ধরনের মেডিকেল ইকুইপমেন্ট দিচ্ছে। টিকা নেওয়ার পর প্লেনে যত জায়গা থাকবে, সেটি পুরোটা ভরে নিয়ে আসবে।

সরকারের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা আজ জানিয়েছেন, চীনের উপহারের টিকা আনতে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর পরিবহন বিমান ১৩ জুন সকালে বেইজিং যাবে। উপহারের টিকা আর চিকিৎসা সামগ্রী নিয়ে বিমানবাহিনীর পরিবহন বিমান এদিন বিকেলে ঢাকায় ফিরে আসবে।

গত ২১ মে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ফোনালাপ হয়। এই ফোনালাপের সময় চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশকে দ্বিতীয় দফায় ছয় লাখ টিকা উপহার দেওয়ার কথা জানান।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement