১৯ মে, ২০২৪, রবিবার

জাজিরায় বাসের চাপায় অটোরিকশার চালক নিহত

Advertisement

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নাওডোবা এলাকায় বাসের চাপায় লাক্কু মাদবর (৩০) নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে। ১৬ এপ্রিল (রবিবার) সকালে পদ্মাসেতুর সার্ভিস সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহত লাক্কু জাজিরা উপজেলার পশ্চিম নাডোবা গ্রামের মালেক মাদবরের ছেলে। তিনি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার চালক ছিলেন। এসময় বাসের নিচে আরও ছয় ব্যক্তি চাপা পরেন। পরে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও সেনা সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানা সূত্র জানায়, রবিবার সকালে একটি বাস ঢাকা থেকে গোপালগঞ্জের মোকসেদপুরে যাচ্ছিল। পদ্মা সেতুর টোল প্লাজা পেরিয়ে সার্ভিস সড়ক দিয়ে বাসটি নাওডোবার জমাদ্দার মোড় এলাকায় আসে। সেখানে বাসে ওঠার জন্য ও যাত্রী পরিবহন করার জন্য ভ্যান, অটোরিকশা নিয়ে চালকরা অপেক্ষা করছিলেন। তখন বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পথচারীদের উপরে উঠিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই লাক্কু মাদবর মারা যায়। আর বাসের নিচে ৬ পথচারী আটকে পড়ে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, পদ্মা দক্ষিণ থানার পুলিশ, শিবচর হাইওয়ে থানার পুলিশ ও জাজিরা শেখ রাসেল সেনানিবাসের সেনা সদস্যরা উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়। সেনানিবাসের ক্রেন দিয়ে বাসটি সরিয়ে আটকে পড়া পথচারীদের উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের শেখ রাসেল সেনানিবাসের ভেতরে হাসপাতালে নেয়া হয়। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রবিবার সকাল ৯টার দিকে বসুমতি ট্রান্সপোটের একটি বাস জাজিরা প্রান্তের টোলপ্লাজা পেরিয়ে এক্সপ্রেসওয়ে থেকে সার্ভিস সড়ক দিয়ে নিচে নেমে জমাদার মোড় এলাকা অতিক্রম করছিল। জমাদ্দার মোড়ে বিভিন্ন বাসে ওঠার জন্য যাত্রীরা অপেক্ষা করছিল। ওই বাসটি তখন ব্রেক ফেল করে পথচারীদের উপর উঠিয়ে দেয়। 

জাজিরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কামরুল হাসান সোহেল গণমাধ্যমকে জানান, এ দুর্ঘটনায় একজন নিহত হয়েছেন। আর ছয়জন আহতসহ সবাইকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২৫ হাজার টাকা সহায়তা ঘোষণা করা হয়েছে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement