১৮ জুন, ২০২৪, মঙ্গলবার

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ ওমানে: আইসিসি

Advertisement

করোনার প্রকটে থমকে গেছে বিশ্ব। খেলাধুলাও এর বাইরে নয়। তারপরও কঠিন নিয়ম মেনে আয়োজন করা হচ্ছে খেলাধুলার বিভন্ন আসর। সম্প্রতি কঠোর নিয়ম নীতির প্রতিশ্রুতি দিয়ে মাঠে গড়ায় বিশ্বের সবচাইতে বড় ও আকর্ষণীয় ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আইপিএল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সেটি শেষ করতে পারেনি।

আবার এই ভারতেই অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। কিন্তু সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে আইসিসি। করোনার ধকল সামলে ভারত ঘরের মাটিতে বিশ্বকাপ আয়োজনে খুব একটা প্রস্তুত নয়। আইপিএলের বাকি অংশ তারা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে আরব আমিরাতে। মুখে কিছু না বললেও এটি হয়তো বিশ্বকাপ আয়োজনের পরীক্ষাই হতে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে আইসিসির একজন কর্মকর্তা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বলেন, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড তাদের জানিয়েছেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনে বিকল্প ভেন্যু হিসেবে যদি আরব আমিরাত ও ওমানকে ব্যাবহার করা হয় তাতেও কোন আপত্তি নেই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের।

এর আগে কথা ছিলো ভারতের জায়গায় বিকল্প ভেন্যু হিসেবে আরব আমিরাতকেই প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। তবে হুট করেই তার সাথে যুক্ত হয়েছে ওমানের নাম। এমন সিদ্ধান্তের কারণ জানতে চাইলে এই কর্মকর্তা বলেন, আরব আমিরাতে আয়োজিত আইপিএলের বাকি অংশ শেষ হবে অক্টোবরের ১০ তারিখের মধ্যে। আর বিশ্বকাপ শুরু হবে আগামী নভেম্বরে। এই সময়ের মধ্যে বৈশ্বিক আসরের জন্য মাঠ প্রস্তুত করা হবে তাই বিশ্বকাপের প্রথম সপ্তাহের ম্যাচগুলো আয়োজন করা হবে ওমানে।

এখনও আনুষ্ঠানিক কোন ঘোষণা না আসলেও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসর আরব আমিরাত ও ওমানে অনুষ্ঠিত হবে এমনটাই ধরে নিয়েছে আইসিসি। তবে আইসিসি এ ব্যাপারে এতটা আত্মবিশ্বাসী কেনো, সেই প্রশ্নে আইসিসির এই কর্মকর্তা বলেন, ভারতে করোনার যে অবস্থা চলছে সেটি পর্যবেক্ষণ করলেই বোঝা যায় বিশ্বকাপ আয়োজন সেখানে সম্ভব নয়। ভারতে করোনার তৃতীয় ঢেউ আসবে না, এমন কথা আমরা বলতে পারি না। বিশ্বকাপে অংশ নিতে আসা ১৬ দলের কেউ যদি করোনায় আক্রান্ত হয় তাহলে আপনি কিভাবে তার রিপ্লেজমেন্ট করবেন। এটা তো আইপিএল নয় যে বদলি খেলোয়াড় দিয়ে চালাবেন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement