২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, রবিবার

তামিমের ব্যাটেই বাংলাওয়াশ হলো জিম্বাবুয়ে; টাইগারদের সিরিজ জয় ৩-০ তে

Advertisement

দুর্দন্ত তামিম, দুর্দান্ত বাংলাদেশ। টাইগার ক্যাপ্টেনের সেঞ্চুরিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৫ উইকেটে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে, টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্তটা প্রথম দিকে ভুল মনে হলেও ২৯৯ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন কুমার দাসের ৮৮ রানের পার্টনারশিপ কিছুটা হলেও স্বস্তিতে ফেরায় বাংলাদেশকে।

দলীয় ৮৮ ও ব্যাক্তিগত ৩২ রানে লিটন ফিরলেও, তামিম দাঁড়িয়ে গেছেন ত্রাতা হয়ে। সাকিবের সাথে ৫৯, মিথুনকে নিয়ে ৫৭ রানের জুটি গড়ে দলকে সুবিধাজনক স্থানে পৌঁছে দেন তামিম ইকবাল। মিস্টার ক্যাপ্টেন যখন ফেরেন তখন দলের স্কোর ২০৪। আর তামিমের নামের পাশে ১১২ তাও আবার মাত্র ৯৭ বলে। এই রান করতে তামিম হাঁকিয়েছেন ৮টি চার ও ৩টি ছয়। যারা এতদিন বলে এসেছে তামিম ইকবাল “স্লো” খেলেন তাদেরকেই ব্যাট হাতেই জবাব দিয়েছেন তামিম ইকবাল।

তার আগে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলা সাকিব আউট হয়েছেন ৩০ রানে। রানের দেখা না পাওয়া মোহাম্মাদ মিথুনও পেয়েছেন রান। তবে খোলস ছেড়ে বের হতে পারেননি এই ব্যাটার। ৫৭ বলে খেলেছেন ৩০ রানের ইনিংস।

দুই ম্যাচে পানি টানা নুরুল হাসান সোহান দেখিয়েছেন তার ব্যাটিং প্রতিভা। মিথুনের সাথে ৬৪। আর আফিফের সাথে ৩৪ রানের জুটি গড়ে ১২ বল হাতে রেখেই প্রতিপক্ষকে হোয়াইটওয়াশ করে মাঠ ছাড়েন তারা। সবচাইতে বড় বিষয় এই ম্যাচে রিয়াদ বাদে সবাই রান পেয়েছে ৩০ এর ঘরে। তবে ২০০ তম ম্যাচটি দেশের সেরা ব্যাটার স্মরনীয় করে রাখতে পারেননি।

কিন্তু মাশরাফীর রেকর্ড ভেঙ্গে ক্যারিয়ারের ২১৯ তম ম্যাচে তুলে নিয়েছেন নিজের ১৪ তম সেঞ্চুরি। এই জয়ের ফলে আইসিসি সুপার লিগে বাংলাদেশের ঝুলিতে যুক্ত হলো আরও ১০ পয়েন্ট। পয়েন্ট টেবিলে এখনও বাংলাদেশ দ্বিতিয় তবে অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিন আফ্রিকা, ভারত পাকিন্তানকে পেছনে ফেলে ধরাছোয়ার বাইরে বাংলাদেশ।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement