১৭ জুন, ২০২৪, সোমবার

নিউজিল্যান্ডের উপর একটা আক্ষেপ ছিলো: নাসুম

Advertisement

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে এসে সিজিজ জিতেছে বাংলাদেশ। এর আগে কখনোই কিউইদের বিপক্ষে সিরিজ জেতেনি টাইগাররা। এটাই প্রথম, কিউইদের ৯৩ রানে আটকে ফেলার পেছনে সবচাইতে বড় অবদান নাসুমের। ১০ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেওয়া নাসুম হয়েছেন প্লেয়ার অবদ্যা ম্যান। নিউজিল্যান্ডের কোন ব্যাটারকে আউট করে নাসুম বেশি মজা পায় সেই গল্প শোনাতে গিয়ে নাসুম বললেন,

আমার কাছে ফিন অ্যালেনের উইকেট সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে। (কলিন ডি) গ্র্যান্ডহোমকে তো আমি এ নিয়ে তিনবার আউট করলাম। অ্যালেনের উইকেটটাই আমার কাছে বেশি ভালো লাগছে। ও রিভার্স সুইপ করতে চাচ্ছিল, আমি ঐ ডিলেভারিটা খুব জোরে বল করেছি আর ও টাইমিংয়ে গড়বড় করেছে। আর এর আগের ম্যাচেও আমার লক্ষ্য ছিল যেন ওর উইকেটটা পাই আমি (মুস্তাফিজুর রহমান পেয়েছিলেন)। আমার অভিষেক উইকেট ও (অ্যালেন)।’

আগের ওভারে সাকিব আল হাসানও এলেনকে পরাস্ত করতে পারেননি। কিউই ব্যাটিং অর্ডারের সবচেয়ে বড় হুমকিকে নাসুম কীভাবে পরাস্ত করলেন?

এ ব্যাপারে নাসুম বলেন,  ‘ও যখন রিভার্স সুইপ করছিল তখন রিয়াদ ভাই আমাকে বলল-ও রিভার্স করলে তুই আরেকটু আস্তে বল করবি। তো আমি যখন বোলিং করছি তখন দেখলাম ও একটু আগেই ঘুরে গেছে, ওটা দেখে আমি জোরে বল করেছি। তাতে মিস টাইমিংয়ে উইকেটটা পেয়ে গেছি।’

এই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেই তাদের মাটিতে নাসুমের অভিষেক হয়েছিলো। সেই কন্ডিশনে খুব বেশি ভালো না করতে পাররেও তার প্রথম শিকার ছিলো এই এলেনই। সেই সিরিজে একটি ম্যাচ জেতা না হলেও ঘরের মাটিতে ঠিকই প্রতিশোধ নিতে পেরেছেন তিনি। এ ব্যাপারে নাসুম বলেন,

 নিউজিল্যান্ড যখন খেলতে গিয়েছি তখন আমার টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হয়। প্রথম ম্যাচে ২ উইকেট পেয়েছিলাম। একটা ম্যাচও জিততে পারিনি। একটা আক্ষেপ ছিল ওদের সঙ্গে জিততে পারিনি। আলহামদুলিল্লাহ হোম কন্ডিশনে আমরা সিরিজ জিতেছি। প্রথম দুইটা ম্যাচ জেতার পর আজ চার নম্বর ম্যাচে এসে সিরিজ জিতলাম।’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement