২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, সোমবার

পন্টিংয়ের চাওয়া পান্ত অন্তত ডাগআউটে বসুক

Advertisement

দুর্ঘটনার কবলে পড়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন ভারতের উইকেটকিপার-ব্যাটার ঋষভ পান্ত। কবে নাগাদ মাঠে ফিরবেন—এ কথা নিশ্চিতভাবে জানাতে পারছেন না তার চিকিৎসকরা। এদিকে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) নতুন আসরে মাঠের খেলা শুরু হবে আগামী ২৩ মার্চ। কিন্তু এই আইপিএলে বাঁহাতি এই ব্যাটারকে চান দিল্লি ক্যাপিটালসের প্রধান কোচ রিকি পন্টিং।

পন্টিং-পান্ত জুটির রসায়নে ২০২১ সালের আসরে কোয়ালিফায়ারে খেলে দিল্লি। আর সবশেষ মৌসুমে পয়েন্ট টেবিলের ৫ নম্বরে ছিল তারা। আসন্ন আসরেও পন্টিংয়ের পরিকল্পনার বড় অংশ জুড়ে ছিলেন ঋষভ। মাঠে খেলতে না পারলেও পান্তের ভূমিকা শেষ হয়ে যায়নি বলে মনে করছেন অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক পন্টিং।

আইসিসির রিভিউতে তিনি বলেছেন, ‘যদি সে শারীরিকভাবে খেলার মতো ফিট না হয়, তাহলেও আমরা তাকে আমাদের সঙ্গে রাখতে চাই। সে দলের সঙ্গে থাকবে, একজন অধিনায়ক হিসেবে তার মনোভাব এবং দুর্দান্ত হাসি, যা আমরা সবাই খুব পছন্দ করি, তা আমরা আমাদের সঙ্গে রাখতে চাই। যদি সে ভ্রমণ করতে এবং দলের আশপাশে থাকতে সক্ষম হয়, আমি চাই সে সপ্তাহের প্রতি দিন ডাগআউটে আমার পাশে বসুক।’

গত ডিসেম্বরে হওয়ার মিনি নিলামে বাড়তি কোনো উইকেটকিপার নেয়নি দিল্লি। তাই পান্তে বিকল্প হতে পারেন আগে থেকে স্কোয়াডে থাকা ফিল সল্ট ও সরফরাজ খান। কিন্তু পন্টিংয়ের মতো পান্তের বিকল্প খুঁজে পাওয়া কঠিন, ‘পান্তের মতো ক্রিকেটারদের বিকল্প নেই। এ ধরনের ক্রিকেটাররা গাছে ধরে না। আমাদের তার বিকল্প খুঁজতে হবে, এরই মধ্যে খোঁজা শুরু করেও দিয়েছি।’

গত ৩০ ডিসেম্বর দিল্লি-দেরাদুন মহাসড়কে ভয়ংকর গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়েন পান্ত। এর পর থেকে চিকিৎসাধীন আছেন এই উইকেটকিপার-ব্যাটার। দুর্ঘটনায় হাঁটুর মূল তিনটি লিগামেন্টই ছিঁড়ে গেছে পান্তের। তার হাঁটুর দুটি লিগামেন্টে সফল অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। আর ছয় সপ্তাহ পর তৃতীয় লিগামেন্টটিতে অস্ত্রোপচার করা হবে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement