৩ মার্চ, ২০২৪, রবিবার

বাজেটে দাম কমলো দেশির আর বাড়লো বিদেশি পণ্যের

Advertisement

২০২১-২২ অর্থবছরে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয় বড় বাজেট উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় জাতীয় সংসদে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট পেশ করেন তিনি।

”মেড ইন বাংলাদেশ “ ব্র্যান্ড প্রতিষ্ঠায় দেশে মেগা শিল্পের বিকাশ ও আমদানি বিকল্প শিল্প উৎপাদন বাড়াতে দেশীয় সব পণ্যের ওপর কর অব্যাহতিতে দর কমবে। বাংলাদেশে উৎপাদন হয় এমন পণ্যের আমদানি নিরুৎসাহিত ও দেশীয় শিল্প সুরক্ষার জন্য বিশেষ উদ্যোগের কথা ঘোষণা করা হয়েছে প্রস্তাবিত বাজেটে। প্রস্তাবিত ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে অটোমোবাইল, ভারী প্রকৌশল শিল্পে ১০ বছর মেয়াদি কর অব্যাহতির প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী। বাজেটে অর্থমন্ত্রী বলেছেন, ‘মেগা শিল্পের বিকাশ এবং আমদানি বিকল্প শিল্প উৎপাদনকে ত্বরান্বিত করার স্বার্থে ”মেড ইন বাংলাদেশ” ব্র্যান্ড প্রতিষ্ঠায় সরকার বদ্ধপরিকর। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশে অটোমোবাইল- থ্রি হুইলার ও ফোর হুইলার উৎপাদনকারী কোম্পানিকে শর্ত সাপেক্ষে আরও ১০ বছর মেয়াদে কর অব্যাহতি প্রদানের প্রস্তাব করছি। এ ছাড়া দেশে উৎপাদিত টিভি, ফ্রিজসহ যাবতীয় ইলেকট্রনিক্স শিল্প পণ্যের ওপর কর অব্যাহতি প্রস্তাব করা হয়েছে। এসব পণ্যের বিপরীতে আমদানিকৃত যে কোনো পণ্যে ৫ থেকে ১০ শতাংশ পর্যন্ত অতিরিক্ত করারোপ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে আমদানিকৃত মোটরসাইকেলের দাম বাড়বে। দেশে সংযোজিত মোটরসাইকেলের দাম কমবে। এ ছাড়া হালকা শিল্পে হোম অ্যাপ্লায়েন্স ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সেস পণ্য এবং হালকা প্রকৌশল শিল্প পণ্যের উৎপাদনকারী কোম্পানিকে শর্ত সাপেক্ষে ১০ বছর মেয়াদি কর অব্যাহতি প্রদানের প্রস্তাব করা হয়েছে।

মুঠোফোন আমদানিতে আমদানি শুল্ক ১০ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করা হয়েছে। নেশা জাতীয় পণ্য আমদানিতে বাজেটে ২০ শতাংশ অগ্রিম আয়কর আরোপ করা হয়েছে। এতে মদ-বিয়ারের দাম বাড়তে পারে। এসব পণ্যে আমদানি শুল্ক বাড়ানো হয়েছে বলেই, মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement