৩ মার্চ, ২০২৪, রবিবার

বাণিজ্য মেলায় প্যাভিলিয়ন ও স্টল বেড়েছে ১০০টি

Advertisement

রূপগঞ্জের পূর্বাচল উপশহরের ৪ নম্বর সেক্টরে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে (বিবিসিএফইসি) দ্বিতীয়বারের মতো মাসব্যাপী শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এক্সিবিশন সেন্টারের এক লাখ ৫৫ হাজার বর্গফুট আয়তনের দুটি হলে এবার বসেছে ২৭তম এই মেলা। গতবারের চেয়ে প্যাভিলিয়ন ও স্টল বেড়েছে প্রায় ১০০টি। এবার বিদেশি প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণও বেড়েছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, শিশুদের জন্য বিনোদন, খাবার হোটেল, শীতের কাপড়, কসমেটিকস, ইলেকট্রনিকস, আসবাব, গৃহস্থালির পণ্যসহ বেশির ভাগ প্যাভিলিয়ন প্রস্তুত। এদিকে মেলায় যাতায়াতের জন্য বিআরটিসির ২৯টি স্পেশাল বাস চালু রয়েছে। বিআরটিসি সার্ভিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত টাইমকিপার মনিরুল ইসলাম জানান, দর্শনার্থী কম থাকায় বাস কম চালু করা হয়েছে। বাকি ৩০টি বাস ডিপোতে প্রস্তুত আছে। যাত্রীর ভিড় বাড়লে সেগুলো চালু করা হবে।

এদিকে বিআরটিসির বাসে যাতায়াতের জন্য মেলার পশ্চিম প্রান্তে পাঁচটি বুথ ও দুটি বিকাশ এজেন্ট চালু করা হয়েছে। বিকাশে টিকিট কিনলে ৫০ শতাংশ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছে বিআরটিসি বাস মালিক কর্তৃপক্ষ। বিকাশ টিকিট কাউন্টারের সুপারভাইজার সুলতান বলেন, ‘প্রতিদিন ৪০০ থেকে ৫০০ টিকিট বিক্রি হয় বিকাশ অ্যাপসের মাধ্যমে। কুড়িল থেকে মেলা প্রাঙ্গণ পর্যন্ত বিআরটিসির ভাড়া ৩৫ টাকা।

গাজীপুর থেকে মেলায় আসা কলেজ শিক্ষার্থী জান্নাতী মনিমা বলেন, ঢাকা বাইপাস সড়কের সম্প্রসারণকাজ চলছে। এ সড়ক ধুলায় আচ্ছন্ন। যানবাহন চলছে ধীরগতিতে। ফলে দর্শনার্থীদের মেলায় আসতে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। ধুলাবালি নিরসনে সড়কে প্রতিনিয়ত পানি ছিটানো প্রয়োজন।

স্টল সাজাতে দেরির কারণ জানতে চাইলে ইন্ডিয়ান স্টলের মালিক মহিউদ্দিন খান (নয়াদিল্লি) বলেন, ইমিগ্রেশন জটিলতায় দেরি হয়েছে।

১ জানুয়ারি মেলা উদ্বোধনের দিন তিন হাজার ২১৭ টিকিট বিক্রি হয়েছে। এরপর দ্বিতীয় দিন সাত হাজার ৪৮১টি, ৩ জানুয়ারি ৯ হাজার ৭১২, ৪ জানুয়ারি ১০ হাজার ২৬, ৫ জানুয়ারি ১০ হাজার ৬৬৫, ষষ্ঠ দিন শুক্রবার ২০ হাজার ৪০০ এবং শনিবার ১১ হাজার ৫২৫টি টিকিট বিক্রি হয়েছে। গতকাল রবিবার মেলার অষ্টম দিন সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১০ হাজার টিকিট বিক্রি হয়েছে। দর্শনার্থীদের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

ইপিবি সচিব ও বাণিজ্য মেলার পরিচালক মো. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, প্রতিবারই মেলা উদ্বোধনের পরও কিছু কাজ বাকি থাকে। স্টল নির্মাণে শ্রমিকসংকটসহ বিভিন্ন ছোটখাটো সমস্যা থাকে।

স্পেনের জুসেরা ও আন্দোলুস পণ্যে ২৫% পর্যন্ত ছাড় : ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় বিশেষ ছাড় ও বান্ডেল প্যাকেজে পণ্য বিক্রি করছে রংপুর কেমিক্যাল। বাণিজ্য মেলায় ‘এ’ ব্লকের জিএস ৪১ নম্বর স্টলে ২৯টি বাহারি প্রসাধনী নিয়ে পসরা সাজিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রসাধনী ও হাইজিন পণ্য নিয়ে তাদের রয়েছে দুটি ব্র্যান্ড জুসেরা ও আন্দোলুস। যার কাঁচামাল সরাসরি আমদানি করা হয় স্পেন থেকে। জুসেরা দিচ্ছে হেয়ার, বডি এবং স্কিন কেয়ার পণ্য, যা স্পেনের এক্সট্রাভার্জিন অলিভ অয়েলসহ বিভিন্ন প্রসাধনী। এসব পণ্যের মধ্যে রয়েছে ক্রিম, শ্যাম্পু, লোশন, শাওয়ার জেল, সিরাম, অলিভ অয়েল, হ্যান্ডওয়াশ ইত্যাদি।

আন্দালুস স্পেনের সেরা উপাদান দিয়ে তৈরি শতভাগ পরিবেশবান্ধব পণ্য। আন্দালুস পণ্যের মধ্যে আছে ডিশওয়াশ, ফ্লোর ক্লিনার, গ্রিস রিমোভার, টয়লেট ক্লিনার, লন্ডি ডিটারজেন্ট, গ্লাস ক্লিনার ইত্যাদি। বাণিজ্য মেলায় নতুন আসা পণ্যের মধ্যে রয়েছে—এক্সট্রাভার্জিন অলিভ অয়েল, ফেস সিরাম, আই সিরাম, হ্যান্ডওয়াশ রিফিল, ব্রাইটেনিং ময়শ্চাইজার ক্রিম।

এ বছরের মেলায় রংপুর কেমিক্যালের প্যাভিলিয়নে ১০ থেকে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় রয়েছে। মেলা উপলক্ষে তারা চারটি নতুন পণ্য নিয়ে এসেছে।

রংপুর কেমিক্যালের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মনিরা হোসাইন জানান, রংপুর কেমিক্যাল তৈরি আন্দালুস স্পেনের সেরা উপাদান দিয়ে তৈরি শতভাগ পরিবেশবান্ধব পণ্য। নিত্যনতুন পণ্যের প্রতি ক্রেতাদের ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement