১৭ জুন, ২০২৪, সোমবার

বান্দরবানে ডায়রিয়ার প্রকোপ, ৯ জনের মৃত্যু

Advertisement

বান্দরবানে বেড়েই চলছে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। জেলার থানচি উপজেলার দুর্গম রেমাক্রী ইউনিয়নের ৭টি পাড়ায় ব্যাপকভাবে ডায়রিয়া ও ম্যালেরিয়ার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এখন পর্যন্ত ডায়রিয়ায় ৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

বান্দরবানের সিভিল সার্জন নীহার রঞ্জন নন্দী বুধবার ১৫ জুন ওই এলাকাসমূহ পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করেন। 

সভায় সিভিল সার্জন নীহার রঞ্জন নন্দী জানান, ডায়রিয়া ও ম্যালেরিয়া ছড়িয়ে পড়া এলাকাগুলোতে দু’টি মেডিকেল টিম কাজ করছে। তাদের কাছে ওরস্যালাইনসহ পর্যাপ্ত ওষুধ রয়েছে। এছাড়া থানচির বলিপাড়া ৩৮ বিজিবির চিকিৎসক দলও আক্রান্ত এলাকায় চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে।

রেমাক্রি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মুইশৈ থোয়াই রনি জানান, গত ১১ জুন থেকে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে পাড়া কারবারি ও শিশুসহ মারা গেছে ৯ জন। কমপক্ষে ৫০ জন আক্রান্ত হয়েছে।

এসব পাড়ায় ডায়রিয়ার পাশাপাশি ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে ১৫ জন। তবে এখন পর্যন্ত ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে কারোর মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

ইউপি চেয়ারম্যান মুইশৈ থোয়াই রনি জানান, ডায়রিয়ায় মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন, মেনতান ম্রো কারবারি (৪৮), ক্রাইঅং ম্রো (১৮), লংপিং ম্রো (৫০), প্রেনময় ম্রো (১২), সংদক ম্রো (২২), সংওয়ো ম্রো (৩৫), রুংরাক ম্রো (৫০), প্রেলি ম্রো (৩৬) এবং মংঞোচাই মারমা (২২)। 

থানচি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ওয়াহিদুজ্জামান মুরাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় সভায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান থোয়াই হ্লা মং মারমা, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ক্যসা প্রু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান চসা থোয়াই মারমা এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement