১৭ জুন, ২০২৪, সোমবার

বিসিএল থেকে তুষার-রাজ্জাককে বাদ দিতেই নাকি ফিটনেস টেস্টের ব্যবস্থা করেছিলো বিসিবি!

Advertisement

ঘরোয়া ক্রিকেটের আগে কখনোই ফিটনেস টেস্ট নেওয়া হয়নি ক্রিকেটারদের। কিন্তু এবার নেওয়া হয়েছে। যার ফলে অনেক সিনিয়র ক্রিকেটারই অংশ নিতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে। বিশেষ করে ঘরোয়া ক্রিকেটে রানের পাহাড় গড়া তুষার ইমরান এবার ছিঁটকে পড়ে লিগ থেকে। কেনো ফিটনেস টেস্ট চালু করা হয়েছিলো সেসব ব্যাখ্যাই দিয়েছে তুষার। কথা বলেছেন গণমাধ্যমের সাথে।

তিনি বলেন, আগে তো ফিটনেস টেস্ট হতো তো না। বছর দুইয়েক আগের বিসিএলে আমি সর্বোচ্চ রান করেছিলাম। আর এবার শুধু মাত্র ফিটনেসের কারণে আমাদে বিসিএল খেলতে দেওয়া হলো না। আমি মনে করি আব্দুর রাজ্জাক ও আমাকে বাদ দেওয়ার জন্যই এই ফিটনেস টেস্ট চালু করেছিলো বিসিবি। রাজ্জাক কোন ভাবে পাস করে গেলেও আমি খেলতে পারিনি। আমি খেলার জন্য ফিন নয় বলে সবার সামনে ঘোষণা করা হয়েছিলো।

ফিটনেসের গুরুত্ব সম্পর্কে তুষারের ভাষ্য, আমি মনে করি ফিটনেসের বদলে পারফরমেন্সকেই আগে বিচার করা উচিত। ফিটনেসটা পরের ব্যাপার। কেউ কেউ শারীরিক ভাবে ফিট। কেউ আবার মানুষিক ভাবে ফিট। সব কিছু বাদ দিয়ে আগে পারফরমেন্স দেখাটা প্রয়োজন। ৯০ ওভার যদি আমি মাঠে ফিল্ডিং করতে পারি, রান করতে পারি তাহলে ফিটনেস কম থাকার কোন মানেই হয় না। মাঠের ভিতর কে কতটুকু ফিট সেটাই বড় বিষয়।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement