২ ডিসেম্বর, ২০২৩, শনিবার

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা জয় নিজেদের পৃথক ম্যাচে

Advertisement

বিশ্ব ফুটবলের দুই জনপ্রিয় জনপ্রিয় দল ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচ মানেই দর্শকদের বাড়তি উন্মাদনা। একই উপমহাদেশের হওয়ায় প্রায় একই সময়েই পরাশক্তি দল দুটিকে মাঠে নামতে দেখা যায়। ১৪ এপ্রিল (শুক্রবার) দিবাগত রাতে পরপর দুই পৃথক ম্যাচ খেলতে নেমেছিল লাতিন আমেরিকার দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ। জয় নিয়ে মাঠ ছাড়া দু’দলই ফুরফুরে মেজাজে থাকার কথা। কিন্তু এক লাল কার্ডে সেলেসাওরা কিছুটা অস্বস্তিতেই রয়েছে।

লাতিন আমেরিকান অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে ইকুয়েডরে খেলতে নামে দুই পরাশক্তি দল। দিবাগত রাত ১টায় প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ব্রাজিল এবং সাড়ে ৩টায় ভেনেজুয়েলার মুখোমুখি হয় আর্জেন্টিনা। 

জাতীয় দল কিংবা জুনিয়র যেকোনো দলই হোক না কেন তা নিয়ে মোটেও কমতি থাকে না দর্শকদের আগ্রহে। তাই দেশ দুটির অনুর্ধ্ব-১৭ ফুটবল দল নিয়ে খোঁজ-খবর নেন ভক্তরা। দিনের প্রথম ম্যাচে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ব্রাজিল জয় পেলেও প্রায় অর্ধেক সময় তারা ১০ জনের দল নিয়েই খেলে। ম্যাচের ৪৯ মিনিটে ব্রাজিল ফরোয়ার্ড দোদো দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখায় লাল কার্ড নিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। তবে ১০ জনের দলের বিরুদ্ধেও জয় পায়নি প্যারাগুয়ে। 

ব্রাজিল-প্যারাগুয়ের ম্যাচে মাত্র ১৯ মিনিটেই এগিয়ে যায় প্যারাগুয়ে। তাদের হয়ে গোল করেন পাউলো রিভারোস। এরপর প্যারাগুয়ে ডিফেন্ডার রদ্রিগো গোমেজের আত্মঘাতি গোলে মাত্র ৫ মিনিট পরই সমতায় আসে ব্রাজিল। বিরতিতে যাওয়ার তিন মিনিট আগেই তারা লিড পায়। সেলেসাওদের এগিয়ে দেওয়া সেই গোলটি করেন রায়ান রোচা। বিরতি থেকে ফিরে ১০ জনের দলে পরিণত হলেও পিছিয়ে থাকেনি দলটি। ৭৯ মিনিটে লুইস গুস্তাভোর গোলে তারা ব্যবধান দ্বিগুণ করে। বড় ব্যবধানে হারের জন্য যখন ক্ষণ গুণছিল প্যারাগুয়ে, ম্যাচে যোগ করা সময়ে গোল করেন অ্যাঞ্জেল আগুয়েও। ৩-২ গোলে জয় পায় ব্রাজিল।

অন্যদিকে দিনের অপর ম্যাচে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে আর্জেন্টিনার হয়ে জোড়া গোল করেন সান্তিয়াগো লোপেজ। ম্যাচের ১৫ মিনিটে তিনি আলবিসেলেস্তাদের এগিয়ে দেওয়ার পর অবশ্য সেই লিড বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। এর ৯ মিনিট পরেই ভেনেজুয়েলার হয়ে সমতা আনেন লুসিয়ানো রেইনোসো। এরপর বিরতিতে যাওয়ার শেষ মিনিটে নিজের ও দলের হয়ে দ্বিতীয় গোল পান লোপেজ। প্রথমার্ধে ২-০ গোলের ব্যবধান বজায় থাকে ম্যাচ শেষেও। দ্বিতীয়ার্ধে আর কোনো দলই গোল করতে পারেনি। ফলে আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement