২২ জুন, ২০২৪, শনিবার

প্রথমবার একে অপরকে দেখল মাথা জোড়া লাগানো দুই শিশু

Advertisement

পেছন দিক থেকে মাথা জোড়া লাগানো দুই শিশুর বিরল ও সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে। প্রায় ১২ ঘণ্টাব্যাপী অস্ত্রোপচারের এ ঘটনাটি ইসরায়েলে প্রথমবারের মতো হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। অপারেশনের পরে প্রথমবারের মতো অবাক বিস্ময়ে তাকিয়েছে দুই শিশু।

এনবিসি নিউজের এক খবরে বলা হয়েছে, ১২ মাস বয়সী শিশুদের সফল অস্ত্রোপচারের পর আলাদা করা হয়। সোরোকা ইউনির্ভাসিটি মেডিকেল সেন্টারে গত বৃহস্পতিবার এ অস্ত্রোপচার হয়। পৃথিবীতে এ ধরনের অপারেশন বিরল না হলেও খুব জটিল এবং ঝুঁকিপূর্ণ।

অপারেশন দলের প্রধান মেডিকেল সেন্টারের পেডিয়াট্রিক নিউরোসার্জন বিভাগের পরিচালক মিকি গিদিয়ন বলেন, যখনই দুটি বাচ্চা তাদের মস্তিষ্ক এবং ভেতরের অংশ সংযুক্ত থাকে, তখন এটি নিউরোসার্জনের কাছে জটিল এবং অসম্ভব করে তোলে। তবে কীভাবে এটি মোকাবিলা করতে হয় তা আমাদের জানা। এ ধরনের অস্ত্রোপচার বিশ্বে খুব বেশি হলে ২০টি হয়েছে বলেও ধারণা করেন তিনি।

শিশুগুলো দ্রুত সেরে উঠছে এবং ভালো আছে জানিয়ে তিনি বলেন, এখনও এ বিষয়ে পরিষ্কার করে বলা সম্ভব নয়। আমাদের কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে এবং পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে দেখতে হবে সামনের দিনে কী হয়।

মাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে তারা বেশ ভালোভাবে সাড়া দিচ্ছে, কান্নাকাটি করছে। রোববার প্রথমবার তাদের মুখোমুখি রাখা হয়েছে বলেও জানান মিকি গিদিয়ন।

শিশুগুলো যখন তাদের মায়ের গর্ভে ছিল, কীভাবে এর সফল অস্ত্রোপচার করা যায় তা নিয়ে তিনি আগে থেকেই পরিকল্পনা শুরু করেন। শিশুগুলো ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর গত আগস্টে যখন তাদের বয়স ৩৪ সপ্তাহ, তখন থেকেই শুরু হয় বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা।

অপারেশন চলাকালীন, ডাক্তাররা তাদের রক্তনালী এবং হাড় আলাদা করার পর, তারা দুটি টিমে বিভক্ত হয়ে দুটি আলাদা অপারেটিং রুমে প্রতিটি শিশুর মাথার খুলি এবং মাথার পুনর্গঠন করেন। পুরো পরিকল্পনা এবং অস্ত্রোপচারে অন্তত ৫০ সদস্যের দল ছিল বলেও জানান পরিচালক মিকি গিদিয়ন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement