১৭ জুন, ২০২৪, সোমবার

ম্যানচেস্টারে খেলার কোন ইচ্ছাই ছিলো না রোনালদোর

Advertisement

রোনালদো ম্যানইউতে গিয়েছে ঠিকই কিন্তু তার ইচ্ছে ছিলো ম্যানসিটিতে যাবার। সিটিও চেয়েছিলো রোনালদোকে কিন্তু কেনো তার ম্যানসিটিতে যাওয়া হলো না সেটাই গিলেম বালাগ।

এক টুইট বার্তায় বালাগ বলেন, রোনালদো ও তার এজেন্ট হোর্হে মেন্ডেস আশাবাদী ছিলেন ম্যান সিটিতে ট্রান্সফারের ব্যাপারে। আর পেপ নিজেও দেখতে পাচ্ছিলেন রোনালদোর এক সিজনে ৪০ গোল করার সম্ভাবনা। য়্যুভেন্টাসের সাথে ভালো সম্পর্ক আছে এমন এক ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যমও জানিয়েছে, রোনালদোর প্রস্থানের জন্য দরজা খুলেই রেখেছিল তুরিনের ক্লাবটি। কিন্তু রোনালদোকে দলে টানার জন্য ম্যান সিটির প্রয়োজন ছিল তাদের আক্রমণভাগের কিছু খেলোয়াড় কমানো। ফোডেন, হেসুস, ফেরান, বার্নাদো সিলভা, মাহরেজ ও গ্রিয়ালিশ সমৃদ্ধ ম্যান সিটির আক্রমণভাগে প্রতিভার অভাব ছিল না। তবে রোনালদোকে জায়গা দেবার জন্যই দুয়েকজন খেলোয়াড় সরানোর দরকার ছিল তাদের।

বালাগ আরও জানিয়েছেন , বার্সেলোনা ও ক্লাবটির সভাপতি হুয়ান লাপোর্তা চেয়েছিলেন বার্নাদো সিলভা, মাহরেজ বা হেসুসের মধ্যে একজন খেলোয়াড়কে দলে নিতে। কিন্তু আর্থিক দুরবস্থার কারণে খুব দ্রুতই সে চেষ্টা বাদ দেয় বার্সা।

কেনো রোনালদো ম্যানসিটিতে যেতে পারেনি সে বিষয়ে বালাগ বলেন, রোনালদো এবং হোর্হে মেন্ডেস অন্য যেকোনো ক্লাবের চেয়ে বেশি যেতে চেয়েছিল ম্যান সিটিতেই। তবে একটা প্ল্যান বি’ও রাখতে হয়েছিল তাদের। আর ইউনাইটেডও প্রথম দিকে রোনালদোকে দলে টানার ব্যাপারে তেমন আগ্রহ দেখায়নি। যখন তারা দেখেছে রোনালদোকে পাওয়া সম্ভব, তখনই তারা ভেবেছে রোনালদোর উচিত ইউনাইটেডেই যোগ দেয়া। নিজেদের ক্লাবের আইকনকে নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের ডেরায় যাওয়া আটকাতে সিটির চেয়ে বেশি বেতন প্রস্তাব করা হয় রোনালদোকে।

গিলেম বালাগের প্রতিবেদন অনেককিছুই পরিস্কার করেছে রোনালদোর ব্যাপারে। য়্যুভেন্টাস ছাড়তে যতোটা আগ্রহী ছিলেন রোনালদো, ততটা ছিলেন না ম্যান ইউতে যোগ দেয়ার ব্যাপারে। আরও নিশ্চিত হওয়া গেলো যে, ইউনাইটেড নয়, ম্যান সিটিতেই যেতে চেয়েছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement