৩ মার্চ, ২০২৪, রবিবার

রাজধানীতে তৈরি পোশাক শিল্প পণ্যের চারটি আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী শুরু ১১ জানুয়ারি

Advertisement

রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) আগামী বুধবার (১১ জানুয়ারি-’২৩) থেকে শুরু হচ্ছে চার দিনব্যাপি তৈরি পোশাক শিল্প পণ্যের চারটি আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী।

এ সব প্রদর্শনীর মধ্যে রয়েছে ২০তম গার্মেন্টস টেকনোলজি শো বাংলাদেশ (জিটিবি) ২০২৩, ১২তম আন্তর্জাতিক গার্মেন্টস অ্যাকসেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং (জিএপি) ২০২৩, প্রথম ভারত টেক্সটাইল ট্রেড ফেয়ার বাংলাদেশ (আইটিটিএফ) ২০২৩ এবং আন্তর্জাতিক ইর্য়ান অ্যান্ড ফ্রের্বিকস এক্সপো।

আগামী ১৪ জানুয়ারি এ প্রদর্শনী শেষ হবে। চারদিনব্যাপী অনুষ্ঠিতব্য এই চারটি প্রদর্শনী প্রতিদিন সকাল ১০ থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

গার্মেন্টস শিল্পের সবচেয়ে বড় এ চারটি আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীতে গার্মেন্টস মেশিনারি, সুতা, কাপড়, গার্মেন্টস অ্যাক্সেসরিজ এবং প্যাকেজিংয়ের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের আরএমজি সেক্টরের বিভিন্ন ধরনের পণ্য প্রদর্শন করা হবে।

এবারই  প্রথম ইন্ডিয়া টেক্সটাইল ট্রেড ফেয়ার বাংলাদেশ ২০২৩ ও সাউথ গুজরাট চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্টি (এসজিসিসিআই) যৌথভাবে ‘আইটিটিএফ  বাংলাদেশ ২০২৩’র মেলায় বিভিন্ন ধরণের সুতা, কাপড়ের পাশাপাশি লেইস, জরি মেটেরিয়ালস এবং অ্যাকসেসরিজ ব্যবহার করে তৈরি ব্রাইডালসহ বিভিন্ন ধরনের পোশাক প্রদর্শনের ব্যবস্থা নিয়েছে।

আজ রোববার এ উপলক্ষ্যে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকরা প্রদর্শনীর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

আস্ক ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশনস প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিপু সুলতান ভূঁইয়া এ সংবাদ সম্মেলনে জানান, ‘গার্মেন্টস টেকনোলজি শো’র যখন বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করে তখন গার্মেন্টস সেক্টরে রপ্তানি ছিল ১ দশমিক ৮ বিলিয়ন মার্কিন মার্কিন ডলার। আর ২০২১-২২ অর্থবছরে বাংলাদেশ থেকে আরএমজি রপ্তানির  পরিমান ৪২ দশমিক ৬১৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে ।

তিনি বলেন, ‘আরএমজি সেক্টরের উন্নয়নের জন্য প্রযুক্তি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে বছরের পর বছর ধরে এই প্রদর্শনী সহায়তা করছে। দেশের আরএমজি খাতে পণ্যের বৈচিত্র্য বাড়াতে এবং নতুন বাজার সৃষ্টির মাধ্যমে এই খাতকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। প্রদর্শনীতে বাংলাদেশে গার্মেন্ট সেক্টরের আধুনিকীকরণ এবং আপগ্রেড করা সম্পর্কিত অত্যাধুনিক প্রযুক্তিগুলোর প্রদর্শন করা হবে। বিশ্বব্যাপী প্রযুক্তিকে স্থানীয় শিল্পের দোরগোড়ার নিয়ে আসার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’

এ সময় টিপু সুলতান ভূঁইয়া জানান, গ্যাপ এক্সপো- ২০২৩ হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় এবং ব্যাপক গার্মেন্টস এক্সেসরিজ এবং প্যাকেজিং এক্সপোজিশন। এ মেলায় যন্ত্রপাতি ও কাঁচামাল প্রদর্শন করা হবে।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যাকসেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিএপিএমইএ) দেশের প্রায় ১ হাজার ৮শ’ গার্মেন্টস অ্যাক্সেসরিজ এবং প্যাকেজিং ফামের্র প্রতিনিধিত্ব করে। সংগঠনটি গার্মেন্টসের আনুষঙ্গিক পণ্য এবং প্যাকেজিং আরএমজি সেক্টরের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ শিল্প হিসাবে কাজ করে। এই শিল্প ৫ লাখের বেশি মানুষকে কর্মসংস্থানের সুযোগ দিয়েছে।  

অন্যান্যের মধ্যে ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএপিএমইএ) সভাপতি মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন মতি এ সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করেন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement