২৩ এপ্রিল, ২০২৪, মঙ্গলবার

‘ল্যামডা’ ডেল্টা প্লাসের পর করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট, ২৯ দেশে হানা !

Advertisement

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, দক্ষিণ আমেরিকার একাধিক দেশ ছাড়াও বিশ্বের মোট ২৯টি দেশে ‘ল্যামডা’ নামক নতুন একটি ভ্যারিয়েন্টের খোঁজ মিলেছে।

সর্বপ্রথম পেরুতে এই প্রজাতির খোঁজ মিলেছিল বলে জানা গেছে। পরে সেখান থেকেই বাকি দেশগুলোতে তা ছড়িয়ে পড়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

পেরুতে এপ্রিল মাস থেকে ৮১ শতাংশ করোনা সংক্রমিত এই ল্যামডা প্রজাতিতে আক্রান্ত। এদিকে গত ৬০ দিনে চিলিতে ল্যামডা প্রজাতিতে আক্রান্তের হার ৩২ শতাংশ। ব্রাজিলে গামা প্রজাতির থেকেও বেশি সংক্রামক হয়ে গিয়েছে এই নতুন ভ্যারিয়েন্ট। এছাড়া আর্জেন্টিনা, ইকুয়েডোরেও এই ভ্যারিয়েন্টের খোঁজ মিলেছে। 

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আশঙ্কা, নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট বেশ সংক্রামক এবং অ্যান্টিবডিকে দুর্বল করে দিতে পারে। তবে আশঙ্কার মাঝেই নতুন এই প্রজাতি নিয়ে আতঙ্কিত নয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

উল্লেখ্য, কিছু দিন আগে ডেল্টা প্রজাতির মিউটেশনের খবর প্রকাশ হয়েছিল। ডেল্টা থেকে মিউটেট করে তৈরি হয়েছে নতুন ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট। এটি পুরোনো ডেল্টা স্ট্রেন থেকে মারাত্মক বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের জন্য ভারতে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ এসেছে। শুধু ভারত নয়, যুক্তরাজ্যও এই ভ্যারিয়েন্টে প্রভাবিত হয়েছে।

এই আবহে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টের খোঁজ মিলেছে ভারত, যুক্তরাজ্য ছাড়াও কানাডা, নেপাল, জার্মানি, পোল্যান্ড, জাপান, আমেরিকা, রাশিয়াতে। ডেল্টা প্লাস বা AY.1 স্ট্রেনটি মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি আটকে দিতে পারে। 

এদিকে এখনও ভারতে সেভাবে ছড়িয়ে না পড়লেও ডেল্টা প্লাস পুরোনো ভ্যারিয়েন্টের থেকে অনেক বেশি সংক্রামক বলে দাবি করেছেন বিজ্ঞানীরা।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement