৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, মঙ্গলবার

শীতের সকালে ঘুম ভাঙতেই হাঁচির উপদ্রব

Advertisement

শীতের সঙ্গে অনেকেই ঠিকঠাক মানিয়ে নিতে পারেন না। এ কারণে শীতে হাঁচি, কাশি, নাক থেকে পানি পড়া বা ঠান্ডা লেগে জ্বরের মতো সমস্যায় ভোগেন অনেকেই। কারও কারও আবার সকালে ঘুম থেকে উঠার সঙ্গে সঙ্গে হাঁচির সমস্যা হয়। এটি ধুলা, আর্দ্রতা এবং অ্যালার্জির কারণে হতে পারে। অতিরিক্ত হাঁচির এই সমস্যাকে বলা হয় অ্যালার্জিক রাইনাইটিস।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনেক অবাঞ্ছিত কণা নাক দিয়ে শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করায় এমনটা হয়। আবার ঠান্ডা এবং পরিবর্তিত আবহাওয়ার কারণেও হাঁচির সমস্যা হতে পারে। ঘন ঘন এমন সমস্যা হলে ঘরোয়া কিছু প্রতিকার অনুসরণ করতে পারেন। তাহলে সহজেই হাঁচির সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেগুলো কী কী-

>>> মধুর সঙ্গে আমলকির রস বা গুঁড়া মিশিয়ে পেস্ট বানাবেন। সকালে ও সন্ধ্যায় এক চামচ করে খেয়ে দেখুন।

>>> পুদিনা পাতার চা খেয়ে দেখতে পারেন। পুদিনা পাতায় থাকা অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য থাকায় অ্যালার্জির সমস্যা থেকে মুক্তির একটা পথ হবে।

>>> হাঁচি আসলে দ্রুত গরম পানি করে ভাঁপ নিতে পারলে আরাম পাবেন। পানি ফুটিয়ে তাতে সামান্য কর্পূর মিশিয়ে নিন। তারপর ভাপ দিন।

>>> হাঁচির সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চাইলে গরম পানি পান করা উপকারী হতে পারে। ঠান্ডা পানি এই সমস্যা বাড়িয়ে তুলতে পারে, তাই হালকা গরম পানি পান করুন। 

>>> তুলসির ক্বাথ পান করলে হাঁচি ও ঠান্ডায় উপশম হয়। ক্বাথ তৈরি করতে পানিতে তুলসির সঙ্গে আদা ও গোল মরিচ মিশিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন। অর্ধেক হয়ে গেলে কুসুম পানিতে মিশিয়ে পান করুন।

>>> হলুদ এবং রক সল্টে উপস্থিত অ্যান্টি-অ্যালার্জিক, অ্যান্টি-ভাইরাল এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য হাঁচি থেকে মুক্তি দেয়। এই দুটি মশলা গরম পানিতে মিশিয়ে পান করলে হাঁচি ও সর্দির সমস্যা কমে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement