২২ জুন, ২০২৪, শনিবার

তৃতীয় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে ভারতে বাংলাদেশি গ্রেফতার

Advertisement

ভারতে অবৈধভাবে বসবাসরত এক বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ। দেশটির উত্তর প্রদেশের নয়ডায় নিজের তৃতীয় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের দাবি অপর এক ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক থাকায় স্ত্রীকে খুন করে ওই ব্যক্তি।

ভারতের পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত ব্যক্তির কাছ থেকে একটি ভারতীয় পাসপোর্ট এবং পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তর প্রদেশের আবাসিক ঠিকানা ব্যবহার করে বানানো দুইটি আধার কার্ড জব্দ করেছে।

নিহত নারী অভিযুক্ত বাবুল মিয়ার তৃতীয় স্ত্রী। অপর দুইজন বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের কুচবিহার জেলায় বসবাস করে। প্রায় এক দশক আগে ভারতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গে বসবাস শুরু করে বাবুল।

নয়ডা পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, ‘বাবুল মিয়া দৈনিক মজুরি শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। আর তার স্ত্রী ফাতিমা বিবির সঙ্গে স্থানীয় এক নির্মাণকাজের কন্ট্রাক্টরের সম্পর্ক ছিলো। গত ৪ আগস্ট বাবুল পশ্চিমবঙ্গ থেকে ফিরে ফাতিমা ও কন্ট্রাক্টর সাজিদকে তার বাড়িতে দেখতে পায়।’

পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, ‘পরে বাবুল আবারও ফাতিমাকে সাজিদের বাড়িতে পায়। সে তার স্ত্রীকে টেনে ফেলে দিয়ে ওড়না গলায় পেঁচিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়।’

পুলিশের দাবি খুনের পর রাজস্থানে পালিয়ে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের ট্রেন ধরে বাবুল। বাংলাদেশে পালানোর চেষ্টা করেও ভিসা পেতে ব্যর্থ হয়।

পুলিশের মুখপাত্র জানান, গত ১০ সেপ্টেম্বর নয়ডায় ফিরে একটি ভাড়া বাসায় আশ্রয় নেয়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার তাকে নয়ডার ৫২ সেক্টরের মেট্রো স্টেশনের কাছ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সূত্র- নিউজ ১৮

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement