১৭ জুন, ২০২৪, সোমবার

বার্সায় খেলার সময় কর ফাঁকি দিয়ে স্যামুয়েল এতোর ২২ মাসের জেল

Advertisement

কর ফাঁকির মামলায় দায় স্বীকার করার পর স্যামুয়েল এতোকে ২২ মাসের জেল দিয়েছে স্পেনের একটি আদালত। তবে শাস্তির মেয়াদ দুই বছরের কম হওয়ায় ও অতীতে কখনও ফৌজদারী অপরাধ না করায় এই স্থগিত থাকছে। তাকে জেলে যেতে হচ্ছে না। মোটা অঙ্কের জরিমানা অবশ্য দিতে হচ্ছে ক্যামেরুন ও বার্সেলোনার সাবেক তারকা ফরোয়ার্ডকে।

বার্সেলোনায় খেলার সময় ২০০৬ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত ‘ইমেজ’ সত্ব থেকে পাওয়া অর্থে ৩৮ লাখ ইউরো ফাঁকি দিয়েছেন বলে আদালতে স্বীকার করেছেন এতো।

জেলে যেতে না হলেও ওই ৩৮ লাখ ইউরোর সঙ্গে আরও ১৮ লাখ ইউরো জরিমানা গুনতে হবে এতোকে।

আদালতে সোমবার কর ফাঁকির কথা স্বীকার করে ৪১ বছর বয়সী এতো দায় চাপিয়েছেন তার ওই সময়ের এজেন্টের ওপর।

“সত্যটা স্বীকার করে নিচ্ছি আমি এবং দেনা যা আছে, শোধ করতে আমি প্রস্তুত। তবে এটাও জানাতে হবে যে তখন আমি একটা বাচ্চা ছিলাম এবং আমার এজেন্ট হোসে মারিয়া মেসায়েস, যাকে মান্য করতাম বাবার মতো, তিনি যা বলতেন, সেটাই সবসময় করতাম।”

কর ফাঁকির ওই সময়টায় এতোর বয়স ছিল ২৫ থেকে ২৯ বছর।

তার এজেন্টের শাস্তি হয়েছে এক বছরের জেল। তাই তাকেও জেলে যেতে হচ্ছে না। মামলার বাদীপক্ষ দাবি জানিয়েছিল, এতো ও তার এজেন্টকে যেন সাড়ে চার বছর করে জেল দেওয়া হয়।

বার্সেলোনায় ২০০৪ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত খেলে ১৪৪ ম্যাচে ১০৮ গোল করেন এতো। সেসময় দলের আক্রমণভাগের বড় ভরসা ছিলেন তিনি। ক্লাবের হয়ে জেতেন তিনটি লা লিগা ও দুটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগসহ বেশ কিছু ট্রফি।

ক্যামেরুনের হয়ে তার গোল ১১৮ ম্যাচে রেকর্ড ৫৬টি। গত ডিসেম্বরে তিনি ক্যামেরুন ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি নির্বাচিত হন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement