৩ মার্চ, ২০২৪, রবিবার

খুলনার হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গে ২৬ মৃত্যু

Advertisement

খুলনা মহানগরীর সরকারী ও বেসরকারী চারটি হাসপাতালে করোনায় ও উপসর্গে ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া খুলনার পাইকগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে তিন জন মারা গেছেন। সব মিলিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ২৬ জন। শনিবার সকাল ৮টা থেকে রোববার (১৮ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে করোনায় মারা গেছেন ১৯ জন এবং উপসর্গে মৃত্যু হয় সাত জনের।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকালপার্সন ডাঃ সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আটজন ও উপসর্গ নিয়ে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় মৃতরা হলেন খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার দুই জন, খুলনার খানজাহান আলী থানার শিরোমনির একজন, বাগেরহাট জেলার মোল্লাহাটের একজন ও একই জেলার পাটেনরগাজী এলাকার একজন এবং একজন করে তিনজন যশোরের ঝিকরগাছা, ঝিনাইদহের মহেশপুর এবং পিরোজপুর জেলার কাউখালী এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। বর্তমানে হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২০৬ জন। এর মধ্যে রেড জোনে ১৪১ জন, ইয়ালো জোনে ২৬ জন, আইসিইউতে ২০ জন ও এই্চডিইউতে ১৯ জন চিকিৎসাধীন আছেন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৬ জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয়েছে ৩৫ জনকে।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডাঃ কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে দুই জন মারা গেছেন। এদের একজন নড়াইল জেলার লোহাগড়ার সরুলিয়া এবং অপর জন খুলনা বটিয়াঘাহা উপজেলার বাসিন্দা। এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বেড সংখ্যা ৮০। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬৬ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৪ জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয়েছে দুই জনকে।

শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখোপাত্র ডাঃ প্রকাশ দেবনাথ জানান, এ হাসপাতালের করোনর ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের একজন যশোরের শার্শা উপজেলার এবং অপর দুই জনের একজন খুলনার পাইকগাছা ও একজন একই জেলার দিঘলিয়া উপজেলার। হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বেড সংখ্যা ৪৫। বর্তমানে ভর্তি রয়েছেন ৪২ জন। এরমধ্যে আইসিইউতে আছেন ১০ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন তিন জন ও ডিসচার্জ দেয়া হয় দুইজনকে।

বেসরকারী গাজী মেডিক্যাল হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে। গত ২৪ ঘন্টায় এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালটির বেড সংখ্যা ১৫০। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৯৪জন। এর মধ্যে আইসিইউতে নয় জন এবং এইচডিইউতে সাতজন রয়েছেন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১২জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৭ জন।

খুলনা সিভিল সার্জন দফতরের কর্মকর্তা ডাঃ সাদিয়া মনোয়ারা ঊষা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় খুলনা জেলায় নমুনা পরীক্ষা করা হয় ১৩৭৯টি। এর মধ্যে আক্রান্ত ৩৯৪ জন। আক্রান্তের হার ২৮ শতাংশ। তিনি জানান, নগরীর চার হাপাতাল ও পাইগাছায় করেনায় মারা গেছেন ১৯ জন। নগরীর চার হাসপাতালে খুলনার আটয়জন এবং পাইকগাছা উপজেলায় তিনজন মারা যান।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement