১৬ এপ্রিল, ২০২৪, মঙ্গলবার

যুক্তরাষ্ট্রে ৭২ ঘণ্টায় গুলিতে নিহত ১৫০

Advertisement

যুক্তরাষ্ট্রে গোলাগুলিতে কমপক্ষে ১৫০ জন নিহত হয়েছে। গত শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত মোট ৭২ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে এই গুলির ঘটনা ঘটেছে। যুক্তরাষ্ট্রের গবেষণা প্রতিষ্ঠান গান ভায়োলেন্স আর্কাইভ এ তথ্য প্রকাশ করেছে। 

এই সময়ে মোট ৪০০টি গুলির ঘটনা ঘটেছে। যুক্তরাষ্ট্রে ৪ জুলাই স্বাধীনতা দিবস। আর এই স্বাধীনতা দিবসের ছুটির সময়ে এমন ঘটনা ঘটল।

নিউইয়র্কে বন্দুক সহিংসতা বাড়ছে। গত শুক্রবার থেকে রোববার এই তিনদিনে সেখানে ২১টি গোলাগুলির ঘটনার শিকার হয়েছেন ২৬ জন। গত ৪ জুলাই নিউইয়র্কে ১২টি গুলির ঘটনা ঘটে। যার শিকার হয়েছেন ১৩ জন। নিউইয়র্কের পুলিশ বিভাগ বলছে, গত বছরের ওই দিনের তুলনায় এ বছর সহিংসতার পরিমাণ বেশি। গত বছর একই দিনে নিউইয়র্কে ৮টি গুলির ঘটনা ঘটে। যার শিকার হন ৮ জন।

শিকাগোতে ৮৩ জন মানুষ গুলিবিদ্ধ হয়েছে। যার মধ্যে মারা গেছেন ১৪ জন। এই ঘটনা ঘটেছে স্থানীয় সময় গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে সোমবার ভোর ছয়টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে। গত রোববার বিকেলে ৫ বছর বয়সী এক কন্যাশিশু গুলিতে আহত হয়। সোমবার সকালে ৬ বছর বয়সী এক কন্যাশিশু গুলিবিদ্ধ হয়।

১৪ জন নিহত ব্যক্তির মধ্যে একজন ছিলেন ইলিনয় আর্মি ন্যাশনাল গার্ডের সদস্য। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার নাম ক্রিস কারভাজাল বলে প্রকাশ করা হয়েছে। কিন্তু কুক কাউন্টি মেডিকেল পরীক্ষক তার নাম আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করেননি।  

শিকাগোর দুইজন পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। যখন পুলিশ কয়েক হাজার মানুষের জমায়েতকে ছত্রভঙ্গ করছিল এবং ৬০ জনকে গ্রেপ্তার করেছিল তখন এক ব্যক্তি গুলি ছুঁড়ে।

শিকাগো পুলিশ সুপার ডেভিড ব্রাউনের মতে, ‘বছরের সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং সপ্তাহ’ ছিল এবারের স্বাধীনতা দিবস। ৮৩ জন মানুষকে গুলি করা হয় এ সময়, যাদের মধ্যে নিহত হয় ১৪ জন। এর মধ্যে ৫ ও ৬ বয়সী মেয়ে শিশুও রয়েছে। আছে সেনা সদস্যও।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement