২ মার্চ, ২০২৪, শনিবার

গাজীপুরে ৫ দিন ধরে বন্ধ পিসিআর ল্যাব

Advertisement

গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা পরীক্ষার পিসিআর ল্যাবের মেশিন বিকল হয়ে পড়েছে। মেশিন বিকল থাকায় ৫ দিন ধরে বন্ধ রয়েছে এই ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা। আর এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন নমুনা দিতে আসা রোগীরা।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীদের ভোগান্তির কথা স্বীকার করে জানিয়েছেন, পিসিআর ল্যাবের মেশিন বিকলের বিষয়টি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবেন।

হাসপাতাল ঘুরে দেখা গেছে, সারা দেশের মতো গাজীপুরেও বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। হাসপাতালে বেড়েছে নমুনা দিতে আসা রোগীদের ভিড়। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও নির্দিষ্ট দিনে নমুনা দিতে পারছেন না অনেকে। এ অবস্থায় গত সোমবার থেকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের মেশিন বিকল হয়ে পড়েছে। এতে ওই ল্যাবে বন্ধ রাখা হয়েছে করোনার নমুনা পরীক্ষা। এ অবস্থায় নমুনা দিতে আসা জেলার বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দারা  পড়েছেন ভোগান্তিতে।

হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের ইনচার্জ  ও মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রধান সাইফুল আলম জানিয়েছেন, কয়েকদিন ধরেই পিসিআর ল্যাবের বায়োসেপ্টিক কেবিনেটে ল্যামিনার ফ্লু’র মেশিনটিতে সমস্যা দেখা দিচ্ছিল। বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কার্যালয়কে জানানো হয়। গত ২৭ জুন ঢাকা থেকে বিশেষজ্ঞ টিম এসে মেশিনটি পরিবর্তনের পরামর্শ দিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে প্রতিবেদন দেয়। ২৮ জুন সকালে কাজ করতে গিয়ে মেশিনটি বিকল হয়ে যায়। এই ল্যাবে প্রতিদিন ১৮৮ জন রোগীর নমুনা পরীক্ষা করা হতো। এদিন থেকে সব নমুনা ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ল্যাবে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে এ কেবিনেটের ভেতরে নমুনা রেখে কাজ করতে হয়। আর ওই কেবিনেটের ল্যামিনার ফ্লু নষ্ট বা বিকল হলে ল্যাবের বাতাসে ভাইরাস ছড়িয়ে সেখানে থাকা কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ইতোমধ্যে এখানকার দুই কর্মচারী আক্রান্ত হয়ে কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। এ ল্যাবে পর্যায়ক্রমে ৬ জন চিকিৎসক, ৭ জন টেকনেশিয়ান এবং ৭ জন কর্মচারী কাজ করেন।’

মেশিন বিকল হয়ে যাওয়ায় নমুনা পরীক্ষায় বিঘ্ন ঘটছে বলে স্বীকার করেছেন শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. হাফিজুর রহমান। তিনি জানান, বিকল্প উপায়ে পরীক্ষার জন্য নমুনাগুলো ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে।

সিভিল সার্জন অফিসের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় এ জেলায় ২৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৭৩ জনের করোনা পজেটিভ হয়েছেন, মারা গেছেন দুইজন। জেলায় সর্বমোট মারা গেছেন ২৪২ জন। নমুনা বিবেচনায় গত ২৪ ঘন্টায় সংক্রমণের হার ২৪.৮২ ভাগ।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ছাড়াও শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল হাসপাতালের মাধ্যমে গাজীপুরে ৪০০ নমুনা পরীক্ষা করা হয়। ঘনবসতি ও শিল্প অধ্যুষিত গাজীপুরে করোনা সংক্রমণ রোধে বিকল মেশিন সরিয়ে নমুনা পরীক্ষা দ্রুত চালুর দাবি জানিছেন চিকিৎসক ও স্থানীয়রা।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisementspot_img
Advertisement

ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে পাশে থাকুন

Advertisement